শিরোনামঃ

ইসলামের দিকে নতুন প্রজন্মদের ধাবিত করতে মসজিদে আল- আমিনের বিয়ে-দেশবাংলা খবর২৪

ইসলামের দিকে নতুন প্রজন্মদের ধাবিত করতে মসজিদে আল- আমিনের বিয়ে-দেশবাংলা খবর২৪ 


বিভাগীয় প্রতিনিধিঃ


শেরপুর জেলার নকলা উপজেলায় মসজিদে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার পরে “উৎসব আনন্দে বজায় থাকুক পরিচ্ছন্নতা, পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন দেশ গড়ি, যত্রতত্র ময়লা ফেলা বন্ধ করি” এমন সব শ্লোগানে পরিচ্ছন্নতার বার্তা নিয়ে বরযাত্রীরা পায়ে হেটে কনের বাড়িতে গিয়ে এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন। ২৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিডি ক্লিন নকলা টিমের সমন্বয়ক আব্দুল্লাহ্ আল-আমিনের বিয়েতে এ ব্যতিক্রমী আয়োজন করা হয়।শুক্রবার জুমার নামাজের পরে সরকারি হাজী জালমামুদ কলেজের পিছনে হযরত আলী (র.) জামে মসজিদে গিয়ে সররেজমিনে দেখা যায় আব্দুল্লাহ্ আল-আমিনের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা চলছে। পরে উপস্থিত সকলকে মিষ্টির পরিবর্তে খেজুর দিয়ে মিষ্টিমুখ করানো হয়। এর পরে নবদম্পত্তির সুখী জীবন কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়।

এসময় বর আব্দুল্লাহ্ আল-আমিনসহ তার বাবা ও পরিবারের অন্যান্য পুরুষ সদস্য, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) জাহিদুর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী অফিসার কাউছার আহাম্মেদ, অবসর প্রাপ্ত অধ্যাপক আলহাজ্ব শফিকুল ইসলাম দুলাল, চৌধুরী ছবরুন নেছা মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল খালেক, নকলা বড় মসজিদের সাবেক খতিব মাওলানা মো. হারেজ উদ্দিন, কায়দা বালিকা দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা মো. ওলি উল্লাহ, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ নকলা উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক শিক্ষক সাংবাদিক মো. মোশারফ হোসাইন, রক্ত সৈনিক নকলার সাধারণ সম্পাদক মকিব হোসেন মামুন, ছাত্রলীগ নেতা আবু হামযা কনক ও তার অনুসারীরা, নকলা প্রবীণ ও প্রতিবন্ধী হিতৈষী সংস্থার সভাপতি ও বিডি ক্লিন নকলা টিমের সহ-সমন্বয়ক আসাদুজ্জামান সৌরভসহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ, রক্তদান সেচ্ছাসেবী সংগঠন রক্তের ফোঁটায় মানবতার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আসিফ আলম চমক, নকলা ইয়্যুথ রিপোর্টার্স ক্লাবের সহ-সভাপতি মো. নাহিদুল ইসলাম রিজনসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও আল-আমিনের শুভাকাঙ্খীদের মধ্যে অনেকে উপস্থিত ছিলেন।মসজিদে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বরযাত্রীরা পরিচ্ছন্নতার বার্তা সম্বলিত ব্যানার নিয়ে পায়ে হেটে কনের বাড়িতে যান। ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক এ বিয়ের দেনমোহরের সমুদয় অর্থ নগদ পরিশোধ করা হয়। 

বিডি ক্লিন নকলা’র সমন্বয়ক নতুন বর আব্দুল্লাহ আল-আমিন বলেন, ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক নতুন জীবন শুরু করতেই এমন আয়োজনে বিয়ে সম্পন্ন করা হয়েছে। বিলাসিতা নয়, বরং অপচয় রোধে সচেতনতা বাড়ানো ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় পরিচ্ছন্নতার বার্তা নিয়ে বরযাত্রীরা পায়ে হেটে কনের বাড়িতে গিয়েছেন। এতে করে একদিকে অপচয় রোধ হলো, অন্যদিকে বিয়ে বাড়িতে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রইলো। নতুন বর পরিচ্ছন্নতার বার্তা বাহক আব্দুল্লাহ আল-আমিন আরও বলেন- অন্যদের মাঝে সচেতনতা বাড়াতেই বিয়ের এমন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

No comments

-->