শিরোনামঃ

দুদকের অভিযানে মেহেরপুরে ঝাড়ুদারের কাছে পাওয়া গেল ৭৪ হাজার টাকা!

দুদকের অভিযানে মেহেরপুরে ঝাড়ুদারের কাছে পাওয়া গেল ৭৪ হাজার টাকা!

মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ মেহেরপুরে দুদকের অভিযানে মেহেরপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের ঝাড়ুদারের পকেটে পাওয়া গেলো ৭৪ হাজার ৬শ ১৪ টাকা। এ ছাড়াও সাব-রেজিস্ট্রার শফিকুল ইসলামের টেবিলের ড্রয়ারে পাওয়া গিয়েছে আরো ৭৬ হাজার টাকা।

তবে এ ৭৬ হাজার টাকা সরকারি টাকা বলে দাবি করেছেন সাব-রেজিস্ট্রার শফিকুল ইসলাম। সোমবার বিকালে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কুষ্টিয়া জেলার সমন্বিত অফিসের সহকারী পরিচালক আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে দুদুকের একটি দল মেহেরপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে অভিযান চালিয়ে এসকল টাকা উদ্ধার করে।

সোমবার দুপুর থেকে দুদকের সদস্যরা সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করার পর বিকালের দিকে তারা অভিযানে নামে। এসময় সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের ঝড়ুদারের পকেট থেকে ৭৪ হাজার ৬শ ১৪ টাকা উদ্ধার করা হয়। তার কাছে এত টাকা কেন জানতে চাইলে রেজাউল হক দুদককে জানান, সাব-রেজিস্ট্রার শফিকুল ইসলামের নির্দেশে রেজিস্ট্রি অফিসের মহুরীদের কাছ থেকে এ টাকা গ্রহণ করা হয়েছে। মেহেরপুর জেলা সাব-রেজিস্টার অফিসে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধভাবে অর্থ আদায়ের অভিযোগ ছিল।

সেই অভিযোগের ধারাবাহিকতায় দুদক এ অভিযান পরিচালনা করে।দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কুষ্টিয়া জেলার সমন্বিত অফিসের সহকারী পরিচালক আলমগীর হোসেন জানান, অবৈধ অর্থ লেনদেনের খবর পেয়ে আমরা অভিযান চালায়। তিনি বলেন, আমরা এখানে যা পেয়েছি তা লিখিতভাবে জানানো হবে, তারপর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি আরও বলেন, প্রেসের সামনে বক্তব্য দেবার বিধি নিষেধ আছে তাই এর চেয়ে বেশি কিছু বলা যাবেনা।

No comments

-->