শিরোনামঃ

সম্মুখ-যোদ্ধা নার্স সেতু প্রথম করোনা টিকা নেওয়ায় নীলফামারী বাসীর অভিনন্দন।

সম্মুখ-যোদ্ধা নার্স সেতু প্রথম করোনা টিকা নেওয়ায় নীলফামারী বাসীর অভিনন্দন।

নুরুজ্জামান সরকার,জেলা প্রতিনিধি (নীলফামারী):

সারাদেশ ব্যাপী করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ কর্মসূচীর অংশ হিসেবে উৎসব মুখর পরিবেশে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন গ্রহন করলেন সম্মুখযোদ্ধারা।নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স জেছমিন নাহার সেতু ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহন করেন। এরপর প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি মীর মাহমুদুল হাসান আস্তাক, সিভিল সার্জন ডা. জাহাঙ্গীর কবীর, পুলিশ পরিদর্শক মাহমুদ উন নবী কালের কন্ঠের জেলা প্রতিনিধি নিখিল রায় ভুবনসহ ১০জন ভ্যাকসিন গ্রহন করেন। ভ্যাকসিন প্রয়োগে ১১টি টীমে ২২জন ভ্যাকসিনেটর ও ৪৪জন স্বেচ্ছাসেবী দায়িত্ব পালন করছেন।


রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারী) সকাল ১১ করোনা টিকা প্রদান কার্যক্রমের শুভ উদ্ধোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি নীলফামারী-২ আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর  ভার্চুয়ালে সংযুক্ত হয়ে এর শুভ উদ্ধোধন ঘোষনা করেন।এসময়  তিনি বলেন,সরকারি নির্দেশনা অনুযাযী আমি নিজেও রেজিষ্ট্রেশ করছি এ টিকা নিজেও গ্রহন করবো। তিনি আরও জানান  সকলকে নির্ভয়ে রেজিষ্ট্রেশন করে নির্ধারিত করোনা টিকা দান কেন্দ্রে এসে টিকা নেওয়ার আহবান করছি।


এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো: হাফিজুর রহমান চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান(পিপিএম,বিপিএম), জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন, সিভিল সার্জন ডাঃ জাহাঙ্গীর কবির, নীলফামারী পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ প্রমুখ। জেলায় প্রথম করোনা টিকা তালিকায় নাম লিখিয়ে সকলকে নির্ভয়ে করোনা টিকা নেওয়ার সাহস যোগালেন সেতু। টিকা নেওয়ার পর তিনি তার অভিমত ব্যক্ত করে বলেন আমি সম্মুর্ণ স্বাধীন এবং আমার নিজস্ব ইচ্ছায় এই করোনা টিকা গ্রহন করেছি। প্রথম টিকা নিতে পেরে আমি নিজেকে খুব ভাগ্যবান মনে করছি। আমি আপনাদের মাধ্যমে জানাতে চাই কোন ভয় না করে আসুন আমরা সকলে টিকা গ্রহন করি।

সিভিল সার্জন বলেন,প্রথম দিনের রেজিস্ট্রেশন তালিকায় থাকা চিকিসৎক, নার্স সহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। এ সময় তিনি বলেন সকল কে রেজিষ্ট্রেশনের মাধ্যমে করোনা টিকা প্রয়োগ করতে হবে। রেজিষ্ট্রেশনের বাইরে কোন ভাবেই এ টিকা নেওযার সুযোগ নেই।

No comments

-->