শিরোনামঃ

দুরারোগ্য এক রোগে আক্রান্ত দশম শ্রেণীর ছাত্রী সাদিয়া পারভীন মুক্তার চিকিৎসার জন্য দেশবাসীর কাছে সহযোগিতা কামনা

দুরারোগ্য এক রোগে আক্রান্ত দশম শ্রেণীর ছাত্রী সাদিয়া পারভীন মুক্তার চিকিৎসার জন্য দেশবাসীর কাছে সহযোগিতা কামনা

নিজস্ব প্রতিবেদক

পিতা মোঃ মাসুদ রানা ,গ্রাম : বামনা কোলা,থানা : গুরুদাস পুর, জেলা:নাটোর , সাদিয়া পারভীন মুক্তার বয়স(১৫)|তার পিতা মোঃ মাসুদ রানা একজন গার্মেন্টস শ্রমিক, তিনি দীর্ঘদিন যাবত গার্মেন্টসে কাজ করে,নিজ এলাকায় একটি জমি নিয়ে ঘর উঠান, কিন্তু, সেই জমির প্রকৃত মালিক প্রতারণা করায় তাদের পরিবারে নেমে আসে মহা বিপর্যয়| তার এইজন্য,তারা, আবার  ঢাকায় চলে আসেন, এবং মোহাম্মদ মাসুদ রানা আবার আগের পেশায় চলে যান|সেখানে ডিউটিরত অবস্থায় হোন্ডা এক্সিডেন্টে এক পা হারান, এইজন্য তিনি ঠিকমত ডিউটি করতে পারেন না|

এদিকে তার ঘরে আরেকটি সন্তান জন্ম হয়, সেই সন্তানের, পিঠে অনেক সমস্যা, তারপর শুরু হয় সাদিয়া পারভীন মুক্তার সমস্যা, সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সাদিয়া পারভীন মুক্তার চোখ দিয়ে শুধু রক্ত পড়ছে এবং রক্ত বমি করছে,, এমনকি তার ব্যবহৃত বালতি‌তে অনেক রক্ত দেখা যায়|সাদিয়া পারভীন মুক্তার সাথে কথা বলার চেষ্টা করলে,সে, শুধু কয়েক সেকেন্ড কথা বললে তার দম বন্ধ হয়ে আসে, এবং সাথে সাথেই অক্সিজেন লাগিয়ে দেয়া হয়,পরে তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি|এদিকে সাদিয়া পারভীন মুক্তার বাবা মোঃ মাসুদ রানার সঙ্গে কথা বললে, তিনি জানান, এখন আমি নিজেই চলতে পারছি না,তার‌ উপর আমার এতো বিপদ| আমার একটি ছেলে অনেক অসুস্থ,তার চিকিৎসা করাতে পারছি না, সেই সঙ্গে আমার মেয়ের এই অবস্থা, এখন আমি কি করবো|কিছু জায়গায় সাদিয়া পারভীন মুক্তার চিকিৎসা করালে, কোনো আশানুরূপ ফল না পাওয়ায়,ডাক্তাররা সাদিয়াকে ইন্ডিয়া নিয়ে যেতে বলেছেন, ডাক্তারগণের রিপোর্ট অনুযায়ী,মোছা: সাদিয়া পারভীন মুক্তা, দুরারোগ্য ব্যাধি (Hematohydrosis)রোগে আক্রান্ত|আর, এদিকে, আমার যা সম্বল ছিল সব শেষ,তাই আর মেয়েটাকে চিকিৎসা করাতে পারছিনা| এইজন্য, প্রধানমন্ত্রী ও দেশবাসীকে আমার মেয়ের চিকিৎসার জন্য সবার কাছে সহযোগিতা কামনা করছি|

সহযোগিতা পাঠানোর ঠিকানা: যোগাযোগ: মোছা সাদিয়া পারভীনের পিতা: মোঃ মাসুদ রানা ফোন এবং বিকাশ:০১৭১৮৬৫১৯৮০ ব্র্যাক ব্যাংক হিসাব নং: ১৫০৮২০১৯৬৪১৬৪০০১ সাভার, আশুলিয়া,বলিভদ্র শাখা।

No comments

-->