শিরোনামঃ

ঠাকুরগাঁও-এ ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের অভিযোগ

ঠাকুরগাঁও-এ ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের অভিযোগ

মোঃসোহেল রানা,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় শালিস বৈঠককে কেন্দ্র করে ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ বুধবার সকালে সদর বালিয়াডাংগী  উপজেলার ভানোর ইউনিয়নে বোয়ালধার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় গুরুতর আহত লুৎফর রহমানকে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।বিচার আশাবাদী  তৈয়ব আলী ছেলের মোহাম্মদ আলী জানান, জমিজমা নিয়ে ঝগড়াঝাঁটির কারণে আমরা ভানোর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহাব সরকারের কাছে বিচার প্রার্থনা করি।

তিনি গত মঙ্গলবার শালিসের দিন ধার্য করেন।শালিশের দিনে প্রতিপক্ষের লোকজন হাজীর না হওয়ায় আজ সকালে শালিস বসে। বৈঠক শুরুর ১০ মিনিটের মধ্যেই উত্তেজিত হয়ে লাঠি-সোটা নিয়ে মারধর শুরু হয় যায় দুই পক্ষের মধ্যে। প্রতিপক্ষ সাইদুর রহমানের লোকজনের আঘাতে লুৎফর রহমান নামে একজন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতেল ভর্তি হন।দুপক্ষের মারধরের সময় চেয়ারম্যানের হাতেও আঘাত লেগেছে বলে জানা গেছেম

এ ব্যাপারে হামিদুর রহমান বলেন, একই পরিবারের অল্প জমি নিয়ে এই বিরোধের সৃষ্টি। কাগজপত্র দেখতে চাওয়ায় তৈয়ব আলীর লোকজন উত্তেজিত হয়ে মারধর শুরু করেছে।ভানোর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহাব সরকার জানান, দু’পক্ষই খুবই উত্তেজিত।শালিস শুরু হওয়ার সাথে সাথে লাঠি-সোটা, চেয়ার টেবিল তুলে মারধর শুরু করে। বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান জানান, এবিষয়ে থানায় কেউ অবগত করেনি।

No comments

-->