নতুন প্রকাশিতঃ

বাগমারায় করোনার ভ্যাকসিন নিলেন এমপি এনামুল হক

বাগমারায় করোনার-ভ্যাকসিন নিলেন এমপি এনামুল হক

রাজশাহী প্রতিনিধি:

আনন্দঘন পরিবেশের মধ্যে দিয়ে রাজশাহীর বাগমারায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে ভ্যাকসিন (টিকা) কর্মসূচীর উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে টিকা গ্রহণ করেন রাজশাহী-৪(বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

প্রধান অতিথি বলেন, টিকা নিন সুস্থ থাকুন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশবাসীর জন্য আশির্বাদ স্বরুপ এই টিকা প্রদান করা হচ্ছে। করোনার শুরু থেকে এখন পর্যন্ত শক্ত ভাবে মোকাবেলা করে চলেছে। করোনা ভাইরাসের আক্রমণ থেকে সবাইকে রক্ষা করতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। সবাইকে করোনা ভাইরাসের টিকা নেয়ার জন্য আহ্বান জানান এমপি এনামুল হক। কোন ব্যক্তি যেন করোনা ভ্যাকসিনের বাহিরে না থাকে সে ব্যাপারে সবাইকে উৎসাহ প্রদান করেন। তিনি আরো বলেন, করোনার ভ্যাকসিনে কোন ক্ষতিকর উপাদান নেই। যে কোন বয়সী ব্যক্তি এই ভ্যাকসিন নিতে পারবে। নিজে সুস্থ থাকতে অবশ্যই ভ্যাকসিন নেয়া প্রয়োজন।

এ উপলক্ষে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ গোলাম রাব্বানীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডাঃ কাইয়ুম তালুকদার, বাগমারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ আহম্মেদ, ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, ভাইস চেয়ারম্যান আসাদণজ্জামান আসাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ আক্তার বেবী প্রমুখ। এ সময় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, চেয়ারম্যান, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, গণমাধ্যম কর্মী সহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকগণ উপস্থিত ছিলেন।

ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক এমপি করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেয়ার পর পরই উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা চেয়ারম্যান, মেয়র, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, গণমাধ্যমকর্মী সহ অনেকেই ভ্যাকসিন নেন।এরই মধ্যে ৩৫০ জন ব্যক্তি অনলাইনে রেজিষ্টেশন করলেও প্রথম দিনে ৪শত জনকে করোনা ভ্যাকসিন টিকা প্রদান করা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ গোলাম রাব্বানী বলেন, বাগমারায় মোট ১২ হাজার জনের জন্য বরাদ্ধ এসেছে। দুই মেয়াদে তাদেরকে ভ্যাকসিন (টিকা) প্রদান করা হবে।

তিনি আরো বলেন রেজিষ্ট্রেশনকারীদের আগে ব্যাকশিন প্রদান করা হচ্ছে। সেই সাথে যারা টিকা নিতে ইচ্ছুক তারা জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসলে তাদেরকে টিকা দেয়া হবে। এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

No comments

-->