শিরোনামঃ

মা-বাবা মারা যাওয়া মেয়ে কে বিয়ের জন্য ২৫ হাজারটাকা তুলে দিল যুব সমাজ।

মা-বাবা মারা যাওয়া মেয়ে কে বিয়ের জন্য ২৫ হাজার টাকা তুলে দিল যুব সমাজ।।


ঢাকা জেলা প্রতিনিধিঃ মোজাহিদ সরকার।। 


কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা উপজেলা মৃগা ইউনিয়ন এর পটকা মাছ খেয়ে মারা যায় হেমন্ত মালাকার(৫৫) এবং তার স্ত্রী সন্চ্ঞিতা মালাকার(৪৫)।তারপর থেকে পরিবার টি খুব অসহায় হয়ে পরে। হেমন্ত মালাকার জীবিত অবস্থায় বড় মেয়ে বিয়ে ঠিক করে যান। এই অবস্থায় মেয়ের বিয়ের জন্য চাপ তৈরী হয় পরিবার টির জন্য।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয় তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তানভীর আহমেদ হেরী কে অনুপ্রাণিত করেন বাংলাদেশের পুলিশ এর গর্বিত সদস্য আতিকুল ইসলাম আতিক একটি আর্থিক সহযোগিতা করার জন্য ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করা জন্য।সর্বশেষ এলাকার মানুষ সহ বিভিন্ন স্থান থেকে মানুষ একটা বিকাশ নাম্বারে সহযোগিতা পাঠান। ইটনা উপজেলা সম্মানিত চেয়ারম্যান “চৌধুরী কামরুল হাসান" সিমা রানী মালাকার এর বিয়ের শাড়ি কিনার জন্য সহযোগিতা করেন। আগামী ২৮ ই ফেব্রুয়ারী  সিমা রানী মালাকার এর শুভ বিবাহ নিজ বাড়ি মৃগা পূর্ব গ্ৰামে অনুষ্ঠিত হবে। 

এই পরিবারে এখন ৩ কন্যা এর মধ্যে সিমা রানী মালাকার এর বিয়ের পর ছোট মেয়ে তমা মালাকার এবং পেমা মালাকর এবং একমাত্র ছেলে অন্তর মালাকর।স্থায়ী জনগণ এবং পরিবার সবাই অন্তর মালাকার এর জন্য স্থায়ী ব্যবস্থা করা জন্য ইটনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং সম্মানিত চেয়ারম্যান সাহেব এর কাছেঅনুরোধ করেন।

No comments

-->