শিরোনামঃ

করোনা ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকারের সমর্থন চেয়ে চিঠি লিখেছেন এস্তোনিয়ার প্রধানমন্ত্রী কাজা কালাস-দেশবাংলা খবর২৪

করোনা ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকারের সমর্থন চেয়ে চিঠি লিখেছেন এস্তোনিয়ার প্রধানমন্ত্রী কাজা কালাস-দেশবাংলা খবর২৪ 











নিউজ ডেক্সঃ

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) ইস্যুতে বাংলাদেশের সমর্থন চেয়েছে উত্তর ইউরোপের দেশ এস্তোনিয়া। বৈশ্বিক এই সংক্রমণ থেকে সুরক্ষা পেতে বিশ্বের একেকটি দেশ একেক রকম ভ্যাকসিন ব্যবহার করছে। কিন্তু এস্তোনিয়া চায় স্বীকৃত একটি আন্তর্জাতিক সনদের মাধ্যমে এসব ভ্যাকসিনের ব্যবহার নিশ্চিত হোক। বাংলাদেশ এই ইস্যুতে ইউরোপের এই দেশকে সমর্থন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, করোনা ইস্যুতে সবগুলো দেশের আন্তর্জাতিক স্বীকৃত একটি সনদের ব্যবহার প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সমর্থন চেয়ে চিঠি লিখেছেন এস্তোনিয়ার প্রধানমন্ত্রী কাজা কালাস।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লেখা কূটনৈতিক চিঠিতে এস্তোনিয়ার প্রধানমন্ত্রী কাজা কালাস বলেন, করোনা থেকে সুরক্ষা পেতে একেক দেশ একেক রকম ভ্যাকসিন ব্যবহার করছে। যে দেশ যে ভ্যাকসিন ব্যবহার করছে, করোনা সনদে ওই ভ্যাকসিনের বাইরে অন্য ভ্যাকসিনগুলোর স্বীকৃতি দেওয়া হচ্ছে না। এতে করে অনেকে ভ্যাকসিন নেওয়া সত্ত্বেও অন্য দেশ ভ্রমণে গেলে এবং ভ্রমণে যাওয়া দেশে ওই ভ্যাকসিনের ব্যবহার না থাকলে অনেক ক্ষেত্রেই ভ্রমণকারীকে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেনটাইনে থাকতে হচ্ছে। এতে করে অনেক সময় ও অর্থের খরচ হচ্ছে। পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক অনেক কাজে বেশি সময় ব্যয় হচ্ছে।

চিঠিতে আরও বলা হয়, আমরা সবাই যদি বৈশ্বিকভাবে একটি করোনা সনদের ব্যবহার করি, যেখানে সবগুলো ভ্যাকসিনের বিষয়ে তথ্য থাকে এবং যেখানে যে ধরনের ভ্যাকসিনের ব্যবহার হচ্ছে তা উল্লেখ থাকে, তাহলে উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলা করা সহজ হবে।কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, এস্তোনিয়ার এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাতে চায় বাংলাদেশ। এই ইস্যুতে দেশটিকে বাংলাদেশের সমর্থন জানিয়ে শিগগিরই চিঠি দেওয়া হবে।

No comments

-->