নতুন প্রকাশিতঃ

মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিমসহ ৩ পৌরসভা যে কারণে নির্বাচন স্থগিত।

মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিমসহ ৩ পৌরসভা যে কারণে নির্বাচন স্থগিত।

শেখ মো.সোহেল রানা মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ 

সীমানা জটিলতার কারণে মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিমসহ পৃথক তিনটি রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে তিন পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত করেছে হাইকোর্ট। নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার আগ মূহুর্তে তিনটি পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত করলো হাইকোর্ট।

নির্বাচন স্থগিত হওয়া পৌরসভার তিনটি হলো- মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিম যশোর ও জয়পুরহাটের কালাই পৌরসভার মঙ্গলবার পৃথক তিনটি রিট আবেদনের উপর প্রাথমিক শুনানি করে বিচারপ্রতি মোঃ মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপ্রতি কামরুল হোসেন মোল্লার হাইকোর্ট এই আদেশ দেন। এদিকে চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি পিটিশনার ছিলেন মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিমের শীমানা জটিলতা সংক্রান্ত একটি উকিল নোটিশ মুন্সীগঞ্জ জেলা নির্বাচন অফিসে পাঠানো হয়েছিল।

এ নোটিশ প্রেরণ করেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শাহ মো. ইজাজ রহমান। মঙ্গলবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন নির্বাচন কর্মকর্তা। স্থানীয় মোঃ মনির হোসেন ও মোঃ শাহজাহান এ উকিল নোটিশের পিটিশনার। নির্বাচন অফিস সুত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি একটি উকিল নোটিশ আসে মুন্সীগঞ্জ নির্বাচন অফিসে।

যা পাঠিয়েছেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শাহ মোঃ ইজাজ রহমান। আর নৈদিঘীর পাড় গ্রামের বাহালুল বাদশার ছেলে মোঃ মনির হোসেন ও পশ্চিম পাড়ার মোঃ নূর ইসলামের ছেলে মোঃ শাহজাহান। এর প্রেক্ষিতে গতকাল মঙ্গলবার হাইকোর্ট নির্বাচন স্থগিত করেছে।

নোটিশে পৌরসভার দুইটি মৌজা বাদ পড়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। এছাড়া নির্বাচনের এলাকা পুনর্বিন্যাস, ভোটকেন্দ্র পুনর্বিন্যাসের দাবী জানানো হয়। মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিম পৌরসভার চতুর্থ ধাপে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি ভোট হওয়ার কথা ছিল। এ তিনটি পৌরসভা নির্বাচনের ওপর তিন মাসের জন্য স্থগিতাদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পৃথক তিনটি রিটের শুনানি নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার বিচারপ্রতি মোঃ মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপ্রতি মোঃ কামরুল হোসেন মোল্লার হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এই আদেশ দেন।

আদালতের আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ এম রাসেল চৌধুরী । এ বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ বদর উদ-দোজা ভূঁইয়া জানান, চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি সীমানা জটিলতা ও তবে নির্বাচন স্থগিত সংক্রান্ত কোন অফিসিয়াল নির্দেশনা এখনো আসনি বলে জানান তিনি।

No comments

-->