শিরোনামঃ

অপরাধীর পরিচয় শুধু অপরাধী, অন্য কিছু নয়ঃ পুলিশ_সুপার_রংপুর

অপরাধীর পরিচয় শুধু অপরাধী, অন্য কিছু নয়ঃ পুলিশ_সুপার_রংপুর।

মোঃ রাশেদুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টারঃ ২০ জানুয়ারী ২০২১ খ্রিঃ (বুধবার) #পীরগাছা থানায় মাসিক অপরাধ ও আইন শৃংখলা পর্যালোচনা সভা বুধবার বেলা ১১.০০ ঘটিকায় অফিসার ইনচার্জ এর কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। পীরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ, জনাব মোঃ আজিজুল ইসলাম, এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন_________বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পুলিশ, বাংলাদেশ পুলিশের উজ্জ্বল নক্ষত্র, রংপুর জেলা পুলিশের সম্মানিত অভিভাবক, মানবিক পুলিশ সুপার, #জনাব_বিপ্লব_কুমার_সরকার_বিপিএম (#বার) #পিপিএম_পুলিশ_সুপার_রংপুর

পুলিশ সুপার রংপুর মহোদয় পীরগাছা থানায় মাসিক অপরাধ ও আইন শৃংখলা পর্যালোচনা সভায় বলেন,বঙ্গবন্ধুর উদাত্ত আহ্বানে সাড়া দিয়ে পুলিশ ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে সাধারণ থ্রি-নট-থ্রি রাইফেল দিয়ে আধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত পাকহানাদার বাহিনীকে মোকাবেলা করেছে‌। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রূপকল্প-২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নের অন্যতম সারথী হিসেবে দেশের জন্য রক্ত দিয়ে গড়া এ বাহিনীকে উন্নত দেশের উপযোগী করে গড়ে তোলা হবে।

রংপুর জেলা পুলিশকে জনবান্ধব, আধুনিক ও যুগোপযোগী বাহিনীতে পরিণত করার লক্ষ্যে সর্বচ্চ মনোভাব নিয়ে কাজ করতে হবে। আইন সবার জন্য সমান। শুধু সাধারণ মানুষই নয়, পুলিশও অপরাধ করলে কোনো ছাড় নেই। অপরাধ প্রমাণিত হলে শাস্তি পেতেই হবে। তখন অপরাধীর পরিচয় শুধু অপরাধী, অন্য কিছু নয়।

অপরাধ ও আইন শৃংখলা পর্যালোচনা সভায় পুলিশ সুপার মহোদয় পুলিশ সম্পর্কে মানুষের নেতিবাচক ধারণা দূর করে জনতার পুলিশ হতে হবে। পেশাদারিত্বের জায়গা থেকে আন্তরিকতার সাথে জনগণকে প্রত্যাশিত সেবা দেয়াই পুলিশের কাজ। দেশের চলমান উন্নয়নকে এগিয়ে নিতে  বিট পুলিশিংসহ আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ, মাদক উদ্ধার,জুয়া-চোরাচালান, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং প্রতিরোধ, আসামি গ্রেফতার, গ্রেফতারি পরোয়ানা তামিলসহ থানায় আগত সাধারণ মানুষের সেবা প্রদানে দায়িত্ববান হওয়ার নির্দেশ দেন। 

অপরাধ ও আইন শৃংখলা পর্যালোচনা সভায় পীরগাছা থানার পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন, পীরগাছা থানা এলাকার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ, মাদক উদ্ধার, জুয়া-চোরাচালান, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং প্রতিরোধ, আসামি গ্রেপ্তার, গ্রেফতারি পরোয়ানা তামিলসহ থানায় আগত সেবা ভোগীদের সেবা প্রদান নিশ্চিত করার নির্দেশ দেন। তিনি আরও বলেন থানা হবে মানুষের সেবার কেন্দ্র, একজন মানুষ নিরুপায় হয়েই থানায় যায়। হয়তো তার সব সমস্যার সমাধান নাও দিতে পারেন, কিন্তু তার কথাগুলো মনোযোগ দিয়ে শুনুন, কী করতে হবে বুঝিয়ে বলুন, তার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করুন। থানায় এসে হাসিমুখে মানুষ যেন কাঙ্ক্ষিত সেবা পায়, এই প্রয়াস যেন অব্যাহত থাকে। থানায় এসে মানুষ যদি ভালো ব্যবহার পায়, পুলিশের প্রতি মানুষ সন্তুষ্ট থাকবে। এতে পুলিশের ওপর মানুষের বিশ্বাস ও আস্থায় জায়গা আরও বাড়বে।

পীরগাছা থানার আয়োজনে অপরাধ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন..... জনাব মধুসূদন রায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) রংপুর, জনাব মোঃ আরমান হোসেন, পিপিএম, সহকারী পুলিশ সুপার, (সি-সার্কেল) রংপুর এবং পীরগাছা থানার তদন্ত/এসআই ও এএসআইগণ উপস্থিত ছিলেন।

No comments

-->