নতুন প্রকাশিতঃ

মুন্সীগঞ্জ জেলা মিরকাদিম পৌরমেয়র ঢাকা ধানমন্ডিতে মেয়র পদে মনোনয়ন পত্র জমা

মুন্সীগঞ্জ জেলা মিরকাদিম পৌরমেয়র  ঢাকা ধানমন্ডিতে মেয়র পদে মনোনয়ন পত্র জমা         

শেখ মো:সোহেল রানা মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জ জেলা মিরকাদিম পৌরমেয়র জনাব শহিদুল ইসলাম শাহীন  ঢাকা ধানমন্ডি  আওয়ামী লীগের কার্যলয় মেয়ের পদে মনোনয়ন  পত্র জমা দিয়েছেন।    আসন্ন ফেব্রুয়ারি মাসে মিরকাদিম পৌরসভা নির্বাচনে ৩য় বারের মত এবার ও জনপ্রিয়তার শীর্ষে, শহিদুল ইসলাম শাহীন।

এর আগে টানা ২ বার পৌরসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করে, দীর্ঘ দশ বছর তিনি মেয়র, থাকা কালীন অবস্থায়, যে সকল বিষয়ে অবদান রেখেছেন তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু হচ্ছে, প্রথমবার ক্ষমতায় এসেই তিনি পৌরসভাকে বিগত দিনের করুন অবস্থা থেকে টেনে তোলেন, এবং তিলে তিলে দীর্ঘ ১০ বছরে সেটিকে উচ্চতার শিখরে স্থান দিয়ে প্রথম শ্রেণীর পৌরসভায় উন্নীত করেন।এর আগে প্রথমেই তিনি পৌরসভার বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করেন,পাশাপাশি পৌর কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দীর্ঘদিনের বকেয়া বেতন তাদের হাতে তুলে দেন, এরপর থেকে শুরু হয় তার নানা কর্মকাণ্ড,  পৌরসভা কে “সি ক্যাটাগরি” থেকে “বি ক্যাটাগরিতে” রূপান্তর করেন। পরে পৌরসভার ট্যাক্স আদায়ের মাধ্যমে বাংলাদেশের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ স্থান অর্জন করেন।

এর পর দ্বিতীয় মেয়াদে, মেয়র হয়েই  পৌর এলাকায় পানি নিষ্কাশনের জন্য সম্পূর্ণ পৌরসভায় বিভিন্ন এলাকা জুড়ে বৃহৎ ড্রেন ব্যবস্থা নির্মাণ করেন। এছাড়াও পৌরসভার প্রতিটি মানুষের রাত্রিকালীন সুবিধার জন্য বিদ্যুতের খুঁটিতে লাইটের ব্যবস্থা করেন এবং গণশৌচাগার সহ মানুষের বসার জন্য  বিভিন্ন স্থানে বেঞ্চ নির্মাণ করেন।তাই এবারের মিরকাদিম পৌর নির্বাচন নিয়ে প্রবল আগ্রহ রয়েছে ভোটারদের মধ্যে। মেয়র পদে অন্যান্য প্রার্থীর মধ্যে ভোটারদের আস্থা অর্জন করতে পেরেছেন নৌকা প্রতীক নিয়ে দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত বর্তমান মেয়র,শাহীন।

এলাকায় জনসেবা ও বয়সে তরুণ হওয়ায় তার রয়েছে ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা। তবে ২য় মেয়াদে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করায় আওয়ামী লীগ মনোনীত তখনকার প্রার্থী বর্তমান মেয়র শাহীনের প্রতিই এবারের নির্বাচনে আস্থা রয়েছে ভোটারদের।টানা দুইবার মেয়র পদে নির্বাচিত হয়ে তিনি পৌরসভার এক হাজার শিক্ষার্থীর শিক্ষাব্যয় ও প্রায় কয়েক শতাধিক নাগরিকের চিকিৎসা-ব্যয় নিয়মিত বহন করছেন।

এছাড়াও দরিদ্রদের রিকশা ও সেলাই মেশিন প্রদান এবং পৌরাঞ্চলে ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চালু সহ বিভিন্ন সহযোগিতার কারণে তিনি রয়েছেন জনপ্রিয়তার শীর্ষে।পুনরায় বর্তমান মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহিনকে ৩য় বার মেয়র হিসেবে পেতে কাজ করে যাচ্ছেন স্থানীয় সাধারণ মানুষ।

তার এমন কর্মযজ্ঞের মধ্য দিয়ে পৌরসভাটি প্রথম সারির পৌরসভা হিসেবে বর্তমানে স্থান অর্জন করে নিয়েছে। দুইবার সাধারণ মানুষের বিপুল ভোটে নির্বাচিত এই জনপ্রতিনিধি, সম্পর্কে মুন্সিগঞ্জ প্রতিদিন বিভিন্ন নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানতে পারে…মিরকাদিম পৌর এলাকার সাধারণ মানুষ, এবারও তৃতীয়বারের মতো তাকেই পুনরায় পৌর মেয়র হিসেবে পেতে চান, এবং তিনি এবারও নৌকা প্রতীক পেলে বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন বলেও পৌরবাসী আশাবাদী।

এ ব্যাপারে পৌর এলাকার স্থানীয় একাধিক গন্যমান্য ব্যক্তি জানান, তিনি এলাকায় একজন ক্লিন ইমেজের মানুষ হিসেবে প্রথম থেকেই  পরিচিত। তিনি তার এলাকায় দলীয় লোকজন ছাড়াও শিক্ষক, ছাত্র, যুবক, আলেম, ব্যবসায়ী, সুশীল সমাজ, জেলে, মুচি, হিন্দু সম্প্রদায়ের সাধারণ মানুষ সহ সবার কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি। তিনি সব সময় মানুষের সুখ দুঃখ নিয়ে কাজ করে থাকেন এছাড়াও তিনি পৌর এলাকার সাধারণ মানুষের সেবায় দীর্ঘদিন ধরে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন।

ফলে আগামী মিরকাদিম পৌর নির্বাচনে তিনি ২য় বারের মত এবারও আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীক পেলে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন বলে মনে করেন তারা।

তবে এ ব্যাপারে বর্তমান পৌর মেয়র, শহীদুল ইসলাম শাহীন বলেন, মাদক মুক্ত, নেশা মুক্ত, দূর্নীতি মুক্ত, সন্ত্রাস মুক্ত, সমাজ গঠন করাই আমার লক্ষ্য। রাজনীতি আমার নেশা- পেশা না। তাই মানুষের জন্য কাজ করতে চাই মানুষের ভালবাসা অর্জন করতে চাই। আমাকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এইবারও নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দিলে,পৌর এলাকার মানুষের পাশে থাকার জায়গা দিলে, সারা জীবন মানুষের পাশে থেকে মানুষের কাজ করে,পৌরবাসীর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে যাব। এছাড়াও মিরকাদিম পৌরসভাকে আমি একটি ডিজিটাল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলব ইনশাআল্লাহ। এছাড়াও বাংলাদেশের মাননীয় প্রধান-মন্ত্রীর রুপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়ন করার জন্য নিরলস ভাবে আমি কাজ করে যাব। আমি কথায় নয় কাজে বিশ্বাসী হতে চাই। তাই এবারও মিরকাদিম পৌর বাসি আমাকে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করবে বলে আমি শতভাগ আশাবাদী।

No comments

-->