শিরোনামঃ

দিনাজপুরে নারী নির্যাতন বিচার ব্যাবস্হায় দীর্ঘ সময়ে অপরাধীরা ধরা ছোঁয়ার বাইরে

 দিনাজপুরে নারী নির্যাতন বিচার ব্যাবস্হায় দীর্ঘ সময়ে অপরাধীরা ধরা ছোঁয়ার বাইরে


রেজওয়ান আলী দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি-নারী ও কন্যার প্রতি যৌন সহিংসতার ঘটনার দ্রুত বিচার পুর্বক ধর্ষক ও নারী নির্যাতন কারী ব্যক্তিগনের বিরুদ্ধে দ্রুত শাস্তি নিশ্চিত করার দাবীতে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন। জেলা প্রশাসকের পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. শরিফুল ইসলাম এবং পুলিশ সুপারের পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো.মমিনুল করিম। অদ্য ২৮শে (জানুয়ারী) বৃহস্পতিবার নারী ও কন্যার প্রতি যৌন সহিংসতার ঘটনার দ্রুত বিচারপুর্বক ধর্ষক নারী নির্যাতন কারী ব্যক্তিগনের বিরুদ্ধে ও শাস্তি নিশ্চিত করার দাবীতে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ 


দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবর স্মারক লিপিতে বলা হয়েছে আমরা দীর্ঘদিন ধরে লক্ষ্য করছি যে,ঘরে-বাইরে বিভিন্ন কর্মে নিয়োজিত নারী ও কন্যারা অব্যাহতভাবে ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণ ও ধর্ষণের পর হত্যা এবং যৌন নিপীড়নের মতো সহিংসতার শিকার হচ্ছে। একশ্রেণীর দুর্বৃত্ত দূর্নীতিপরায়ন,স্বার্থান্বেষী অপরাধীচক্র, অপরাধীচক্র,সাম্প্রদায়িক ও উগ্র মৌলবাদী গোষ্ঠীর কাছে সমাজ জিম্মি হয়ে পড়ছে।বিশেষ করে নারী,শিশু,সংখ্যালঘু, আদিবাসী,সুবিধাবঞ্চিত প্রান্তিক জনগোষ্ঠী; যা আমাদের মূল্যবোধ,নৈতিকবতা ও মানবিকতায় আঘাত হানে। নারীর প্রতি সহিংসতা সমাজকে কলুষিত করছে, শিশু,কিশোর,তরুনদের একাংশ অপরাধের সঙ্গে সম্পৃক্ত হচ্ছে,প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অনলাইন মিডিয়া এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের অপব্যবহার করছে। বহুলাংশে সমাজের উদাসিনতায় বে-আইনী সালিশের মাধ্যমে মিটমাটের ঘটনা ঘটছে,ধর্ষক ও নারী নির্যাতন কারীর সাথে বিয়ের ঘটনা ধর্ষণের মতো অপরাধের গুরুত্ব লঘু করে সমাজে অন্য বার্তা পৌছে দিচ্ছে। 

আদালত একের পর এক তারিখ দিয়ে মামলার আসামীগন কে অপরাধ আরও করার সূযোগ করে দিচ্ছে। যেন আদালত ধর্ষন ও নারী নির্যাতন মামলায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অল্প সময়ের মধ্যে শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। তবেই দেশ ও সমাজে উক্ত ঘটনা থেকে দেশ ও জাতী পরিত্রাণ পাবে। দিনাজপুর জেলা তথা সব উপজেলা সমন্বিত যত গুলি এরকম মামলা রয়েছে,উক্ত মামলা গুলোর বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্হার রায় প্রকাশে জনকল্যাণের পথ সূগোম করতে এগিয়ে আসার জোর দাবি। 


No comments

-->