নতুন প্রকাশিতঃ

উন্নত সমৃদ্ধ ও আধুনিক ইউনিয়ন গড়তে নৌকার মাঝি হতে চান- সাফি

উন্নত সমৃদ্ধ ও আধুনিক ইউনিয়ন গড়তে নৌকার মাঝি হতে চান- সাফি

উৎপল কুমার, শিবগঞ্জ বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার আসন্ন ৮নং শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদ  নির্বাচনে উন্নত, সমৃদ্ধ, আধুনিক এবং  মাদক, নারী নির্যাতন, বাল্যবিবাহ মুক্ত ইউনিয়ন  গড়তে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকার মাঝি হতে চান সাবেক ছাত্রনেতা, ইউনিয়ন আওয়ামী যুব লীগের সভাপতি ও গুজিয়া উচ্চসসসবিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি সব সরকার সাফি। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা উন্নত- সমৃদ্ধ বাংলাদেশের রুপকারক জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন গুলো নৌকার মাঝি হয়ে ইউনিয়নের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য নিরলস ভাবে কাজ করতে চান তিনি ।

দুর্দিনের অত্যাচার নির্যাতন ও হামলা ও ২০০১ সালে মামলার ভুক্তভোগী, সাফিউল সরকার সাফি, ১৯৯৪ সাল থেকে ছাত্রলীগের সদস্যের মাধ্যমে রাজনীতির মাঠে পদার্পণ করেন। ১৯৯৬ সালে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের  যুগ্ম- আহবায়কের মাধ্যমে নেতৃত্বে আসেন তিনি। অতঃপর ২০০৪ সালে ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাঃ সম্পাদকের দায়িত্ব পান এবং ২০০৪ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত একটানা সাঃ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১২ সাল থেকে অদ্যবদি পর্যন্ত দায়িত্ব নিষ্ঠা ও সংগঠন কে সুসংগঠিত রেখে ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। গুজিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের মতো সুনামধন্য প্রতিষ্ঠানে ২০১০ থেকে ২০১৯ সদস্য ও সভাপতি হিসাবে ছিলেন। বর্তমানে তিনি মাঝপাড়া সঃ প্রাঃ বিদ্যালয়ের PTA সভাপতি।

তিনি বিভিন্ন সময় অসহায়, গরীব দুঃখী, সামাজিক অনুষ্ঠান, কন্যাদ্বায় পিতাকে, বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। হিন্দু মুসলিম জাতি ভেদাভেদ না করে হিন্দুদের বিভিন্ন পূজা, কন্যাদ্বায়গ্রস্থ মেয়ের বিয়েতে নগদ অর্থ প্রদান করেছেন। শুধু তাই নয় নিজ এলাকা সহ ইউনিয়নের বিভিন্ন মসজিদ- মন্দিরের অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য তিনি কাজ করেছেন। 

মাঠে ময়দানে দুর্যোগে করোনা মহামারীতে  মানুষের  দুর্দিনে ঘরে-ঘরে, বাড়ি-বাড়ি গিয়ে নিজ তহবিল থেকে খাদ্য সামগ্রী, নগদ অর্থ প্রদান করেছেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন বন্দরে গণসচেতনা মূলক প্রচারণা ও মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরন করেন এই মহামারীতে এবং বর্তমানেও এই কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন তিনি। সম্প্রতি তিনি ইউনিয়নের শ্যামপুর গ্রামের আগুনে পুড়ে যাওয়া পরিবারকে ঘড় নির্মান করার জন্য দুটি পরিবারের মাঝে উন্নত মানের চার বান্ডিল ঢেউটিন প্রদান করেন। শীতের শুরুতেই ধারাবাহিকতা অনুযায়ী তিনি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার লোকের মাঝে আনুষ্ঠানিক ভাবে সার্কেল এস.পি ও ওসি'র উপস্থিতিতে প্রায় ৫০০ শত কম্বল বিতরণ করেন।

তিনি নির্দিদ্ধায় একজন দক্ষ নেতা, শিক্ষানুরাগী, সমাজ সেবক ও অসহায় মানুষের বন্ধু।একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজপথের লড়াকু সৈনিক ও দলের দুর্দিনের ত্যাগী নেতা। চলমান শিবগঞ্জ ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের হাতকে শক্তিশালী করে তোলার লক্ষ্যে বিভিন্ন ভাবে ব্যাপক কাজ করে যাচ্ছেন।

শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ও দলের নেতা কর্মীর প্রতি তার অসীম ভালোবাসা, সম্মান ও শ্রদ্ধাবোধ রেখে সাংগঠনিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।এলাকার মাটি ও মানুষের উন্নয়নের লক্ষ্যে এবং ৯টি ওয়ার্ডে অবহেলিত কাজ গুলি বাস্তবায়ন করার জন্য মানব কল্যাণের সেবাই এগিয়ে আসতে চান। 

সাফিউল সরকার সাফি বলেন, আমি এলাকার সার্বিক উন্নয়নের জন্য, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার  বৃহত্তম ৮নং শিবগঞ্জ ইউনিয়ন কে চাঁদাবাজ, সন্ত্রাস, নারী নির্যাতন, বাল্য বিবাহ ও মাদক নির্মূল করে, জননেত্রীর উন্নয়নের ধারা ইউনিয়নে বয়ে দিতে এলাকা বাসীকে শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করার পরিবেশ সৃষ্টি করতে আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকার মাঝি হতে চাই, দল যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় । আমি আমার ইউনিয়নের জনগণের প্রতি সম্মান, আন্তরিক ভালোবাসা ও শ্রদ্ধাবোধ রেখে আমি সবার সহযোগিতা কামনা করছি।

ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ঘুড়ে এবং মানুষের সাথে কথা বলে জানা যায়, সাফিউল সরকার সাফি সবসময় মানুষের খোজখবর নিয়েছেন, প্রত্যেক মসজিদে নামাজ আদায় করে লোকজনের সাথে তাদের সুবিধা - অসুবিধা নিয়ে কথা বলেছেন। ইউনিয়নের নারায়ণপুর এলাকার শিক্ষক রতিশ চন্দ্র মোদকের সাথে কথা বললে তিনি বলেন সাফি ভাই নিয়মিত আমাদের খোঁজখবর নেন এবং প্রতিবার দূর্গা পূজায় নগদ আর্থিক সাহায্য প্রদান করেছেন।

No comments

-->