শিরোনামঃ

কুষ্টিয়ার শীর্ষ সন্ত্রাসী মুকুলের সহযোগী রাশিদুলের পক্ষে মানববন্ধন

 কুষ্টিয়ার শীর্ষ সন্ত্রাসী মুকুলের সহযোগী রাশিদুলের পক্ষে মানববন্ধন 

শাহীন আলম লিটন, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি !!! চরমপন্থী সংগঠন গনমুক্তি ফৌজের প্রধান আমিনুল ইসলাম মুকুলের সহযোগী র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার সন্ত্রাসী রাশিদুলের পক্ষে মানববন্ধন হয়েছে।   বৃহস্পতিবার (০৭ জানুয়ারী)  সকাল ১০ টার সময় কুষ্টিয়া ডিসি কোর্টের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।পরবর্তীতে পুলিশ মানববন্ধন বাধা দিলে তারা পুনরায় কুষ্টিয়া -ঝিনাইদহ মহাসড়কে মানবন্ধন করে। 

সুত্রে জানা যায়,দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের আতংক চরমপন্থী সংগঠন গনমুক্তি ফৌজের প্রধান সন্ত্রাসী আমিনুল ইসলাম মুকুল।বর্তমানে সন্ত্রাসী আমিনুল ইসলাম মুকুল শতাধিক হত্যা মামলা সহ বিভিন্ন মামলায় জড়িত থাকার কারনে ক্রসফায়ারের ভয়ে মালয়েশিয়ায় পলাতক রয়েছেন।সন্ত্রাসী মুকুল মালয়েশিয়ায় পলাতক থাকা অবস্থায় তার নেতৃত্বে বর্তমানে হত্যা,চাদাবাজি,গুম, সহ নানা ধরনের অপকর্ম কাজ পরিচালনা কর ভাদালীয়া এলাকার সন্ত্রাসী আলীম,ভবানীপুরের লাবু শকাতী,শহরের জেড এম সম্রাট,মাদক ব্যবসায়ী ইমন,ভবানীপুরের রাশিদুল,আলামপুরের অরফেন,বালিয়াপাড়ার রবি,মুকুলের শ্যালক সাইদুল, সহ আরও অনেকেই।বর্তমানে প্রশাসনের কঠোর অভিযানের ফলে মাদক অস্ত্রসহ উল্লিখিত ব্যাক্তিরা বিভিন্নভাবে একাধিকবার আইনশৃংখলা বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হয়েছে।

এরই মাঝে গত ২৭ ডিসেম্বর আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে মুকুলের সহযোগী কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের ভবানীপুর এলাকার রাশিদুল ইসলাম বিপুল পরিমান, অস্ত্র,গুলি সহ গ্রেফতার হয়। রাশিদুল গ্রেফতার হবার পর থেকে মুকুল বাহিনীর মধ্যে আতংকের সৃষ্টি হয়েছে। মুকুল বাহিনীর সকল সন্ত্রাসীরা তাদের অস্তিত্ব রক্ষা করার জন্য রাশিদুলকে যুবলীগ নেতা বলে দাবি করে  আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী লিপটন ও মামুনের সাহায্যে রাশিদুলকে গ্রেফতার করেছে বলে মিথ্যা বানোয়াট ঘটনা সাজিয়ে ভাড়াকৃত লোক দিয়ে মানববন্ধন করিয়েছেন বলে গোপন সুত্রে জানা যায়। এ বিষয়ে র‍্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর গাফফারুজ্জামান বলেন, র‍্যাব কারও দ্বারা প্রভাবিত নয়। সুনির্দিষ্ট তথ্য ও উপাত্তের ভিত্তিতে রাশিদুলকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করা হয়েছিলো।

No comments

-->