শিরোনামঃ

কৌশলে এগিয়ে বিএনপি আড়ানী পৌর নির্বাচনে!

কৌশলে এগিয়ে বিএনপি আড়ানী পৌর নির্বাচনে! 

সাজ্জাদ মাহমুদ সুইট, বাঘা প্রতিনিধি, রাজশাহীঃ রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী  পৌরসভায় আগামী ১৬ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন। উক্ত নির্বাচনের দিন ঘনিয়ে আসায় জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচারোনা। বড় দুই দল  আ’লীগ শহীদুজ্জামান শাহীদ (নৌকা) ও  বিএনপি’র তোজাম্মেল হোক (ধানের শীষ) একক প্রার্থী ছাড়াও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী বর্তমান মেয়র মুক্তার আলী( নারিকেল গাছ)  হিসেবে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করছেন ।আসন্ন নির্বাচনে  প্রচার প্রচারণার প্রতিযোগিতা চালাচ্ছেন আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থী,একে অপরের ভুল ত্রুটিগুলো প্রচারকরছেন সমান ভাবে। এতে করে পৌর এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন নিয়েও সংশয়ে আছেন এলাকাবাসী। 

অপর দিকে বিএনপি'র একক প্রার্থী তোজাম্মেল হোক নিভু নিভু প্রদীপের মত প্রথম থেকে প্রচারণা চালাচ্ছেন।এমনকি জেলা, উপজেলার নেতারাও নামছিলেন না ধানের শীষ প্রতীকের প্রচারণায়। তোজাম্মেল হোক দুই এক জন কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন ও নির্বাচনী ইশতেহার পৌঁছে দিচ্ছেন ভোটারদের কাছে। তার এমন প্রচারণা দেখে নৌকার প্রার্থী শহীদুজ্জামান শাহীদসহ নেতা কর্মীরা প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে নারিকেল গাছ প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মুক্তার কে ভাবছেন। 

এদিকে মুক্তার আলী ধানের শীষ প্রতীকের তোজাম্মেল কে প্রতিদ্বন্দী মনে করছেন। তিনি তার বক্তব্যে এ কথা প্রকাশ করেন।বিএনপির অভিজ্ঞ এই প্রার্থী তখনি নড়ে চড়ে বসেছেন। খুব সচেতনতার সাথে রাজশাহী জেলা বি এন পির আহবায়ক আবু সাঈদ চাঁদ পৌর এলাকার বাহির দিয়ে ঘুড়ে ফিরে যাচ্ছেন। জেলা,উপজেলার নেতৃবৃন্দ ভোট প্রার্থনার পাশাপাশি নির্বাচনী ইশতেহার পৌঁছাচ্ছেন বাড়ি বাড়ি। 

অনুসন্ধানে জানা যায়, শহীদুজ্জামান শাহীদ ও মুক্তার আলী কেউই নির্বাচনী ইশতেহারে গুরুত্ব আরোপ করেন নি। এতে করে কৌশলের দিক থেকে  ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী এগিয়ে। 

পৌরসভার সাধারণ বেশকিছু ভোটার থেকে জানা যায়, বুদ্ধিতে শুধু নই ভোটেও এগিয়ে থাকবে তোজাম্মেল হক। শাহীদ ও মুক্তারের প্রতিযোগিতার মধ্যে দিয়ে ধানের শীষ বিজয়ী হবে।এমন টা আভাস তারা পাচ্ছেন। তবে তাদের ধারনা আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা মুক্তার কে ভোট দিলে বা কাজ করলে মুক্তার বিজয়ী হবে। তাঁরা এ-ও বলেন শাহীদ মানুষ হিসাবে ভালো কিন্তু ভোটের মাঠে নতুন তাই অবস্থা ভালো না। 

তাঁরা আরো বলেন, দীর্ঘদিনের সমস্যা রেললাইনের এপার আর ওপার। আমরা ছোট থেকে দেখছি। এপারে ভোট বেশি। এপারে ধানের শীষ এর ভোট ও ভালোই আছে। আর ধানের শীষের কিছু লোক ভাগ হয়ে আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থীর সাথে আছে, কিন্তু সময় মত ভোট দিবেনা। ভোট তারা তোজাম্মেল কেই দিবে। নিজেদের মধ্যে প্রতিদ্বন্দিতা করাতে ধানের শীষ পাশ এই অবস্থা হবে। 

আসন্ন আড়ানী পৌরসভার নির্বাচনে ১৩ হাজার ৮৮৪ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এর মধ্যে পুরুষ ৬ হাজার ৮৭৮ এবং নারী ৭হাজার ১০৬জন। এছাড়াও ৯ টি ওয়ার্ডে ২৯ জন সাধারণ কাউন্সিলর ও ১০ জন নারী কাউন্সিলর প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। আড়ানী পৌরসভায় নয়টি ওয়ার্ডে ৯টি ভোটকেন্দ্রে বুথ ৪৬টি। আগামী ১৬ই জানুয়ারী ২০২১ ইভিএমের মাধ্যমে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে বলে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার দপ্তর সূত্রে জানা গেছে।

No comments

-->