নতুন প্রকাশিতঃ

কুড়িগ্রামে বালুচরে বিনাচাষে তিষি আবাদ করে উজ্জ্বল সম্ভাবনা দেখছেন কৃষকরা

কুড়িগ্রামে বালুচরে বিনাচাষে তিষি আবাদ করে উজ্জ্বল সম্ভাবনা দেখছেন কৃষকরারুহুল আমিন রুকু, কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামে বিভিন্ন নদ-নদীর চর দ্বীপ চরের বালুতে বিনাচাষে তিষি চাষ করে উজ্জ্বল সম্ভাবনা দেখছেন কৃষকরা। চাষ খরচ না থাকায়  কৃষকরা জেগে উঠা চর সমূহে তিষি চাষাবাদ করেছে। উৎপাদিত ফসলের ন্যায্যমূল্য পেলে এ চাষাবাদের প্রতি কৃষকদের আগ্রহ আরো বাড়বে। জানা গেছে, কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার পাঁচগাছী ইউনিয়নের কদমতলা, মোগলবাসা ইউনিয়নের চর সিতাইঝাড়, চরকৃষ্ণপুর ও উলিপুর উপজেলার সাহেবের আলগা, জাহাজের আলগা, নামাজের চর, মেকুরের আলগা, গেন্দার আলগা, কাজিয়ার চর, বুড়াবুড়ী, বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের আকেলমামুদ, মিয়াজী পাড়া ও মশালের চরসহ বিভিন্ন চর এলাকায় এবারে তিষি চাষাবাদের ভালো ফলন হয়েছে। স্থানীয় কৃষক জেলাল হক, ভোলা মামুদ, শফিকুল ইসলাম, মঞ্জু মিয়া সহ অনেকে জানান, তিষি আবাদে এবার ভালো হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আশা করছি ভালোই ফলন হবে। 

উলিপুর উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সাজেদুল করিম জানান, বিভিন্ন নদ-নদীর তীরবর্তী বালুচরে বিনাচাষে তিষি আবাদ করেছে অনেক কৃষক। বীজ বপন হতে উত্তোলন পর্যন্ত সময় লাগে ৩ মাস। এক হেক্টর জমিতে ৭ থেকে ৮ কেজি রোপন করতে হয়। ভালো পরিচর্যা করলে ১ হেক্টর জমিতে ১ টন তিষি পাওয়া যেতে পারে। বিভিন্ন ধরণের সুসাদু খাবারে তিষি ব্যবহার করা হয়। চরাঞ্চলের কৃষকরা বিনা খরচে এ চাষাবাদ করছে। তবে উৎপাদন বৃদ্ধি করতে কৃষি অফিস থেকে বিভিন্ন পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

No comments

-->