নতুন প্রকাশিতঃ

লোহাগড়া ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত।

লোহাগড়া ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত। 

মো: আজিজুর বিশ্বাস,স্টাফ রিপোর্টার নড়াইলঃ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার পারমল্লিকপুর গ্রামের মো:মজিবর মুসল্লীর ছেলে লোহাগড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য ও লোহাগড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী সজীব মুসল্লী দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে লোহাগড়া হাসপাতালে ভর্তি।

পরিবার সূত্রে জানা যায়,সজীব মুসল্লী শনিবার ভোর ৪:৩০ ঘটিকার সময় ফজরের নামাজ পড়ার জন্য ঘুম থেকে ওঠে এবং নিজের গরুর খামারে কুকুর ডাকাডাকি করলে গরুর খামারে যাওয়ার পথে তার উপরে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীবাহীনিরা হামলা করে।

সজীব মুসল্লীর স্বজন"রা জানান,সজিব পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ে এজন্যই ফজরের নামাজ পড়ার জন্য ওজু করতে টিউবয়েল যায়, এসময় নিজেদের গরুর খামারে কুকুর ডাকাডাকি করলে সেখানে যেতে গেলে,আগে থেকেই ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীবাহীনিরা ডাম্পার ও হাতুড়ী দিয়ে তাকে এলোপাতাড়িভাবে মারধর করে গুরুতর আহত করে। 

সজীবের আন্তচিৎকারে আশে পাশের স্থানীয় লোকজন ছুটে আসলে সন্ত্রাসী"রা দ্রুত মটোরসাইকেল যোগে পালিয়ে যায়।এসময় সজীব কে গুরুতর আহত অবস্থায় তার পরিবারের লোকেরা উদ্ধার করে লোহাগড়া সাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।এমন নেক্কার ঘটনার কথা সুনে আওয়ামী-লীগসহ বিভিন্য অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মিরা হাসপাতালে সজীব কে দেখতে জান এবং এমন ঘটনার তীব্র নিন্দা  জানান।লোহাগড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম,এম,রাশেদুল হাসান রাশেদ  জানান,রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারনে সজীব হামলার শিকার হয়েছে। তাকে এমন ভাবে হাতুড়ী ও মটোরসাইকেলের ডাম্পার দিয়ে মেরেছে যেটা কোন ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ আশিকুর রহমান বলেন,কে বা কাহারা সজীবের উপরে হামলা করেছে তা কেওই নিশ্চিত করে বলতে পারছে না,সজীব সুস্থ্য হলেই কারা তার উপরে হামলা করেছে সেটা যেনে আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

No comments

-->