নতুন প্রকাশিতঃ

বাগমারায় বাড়িঘরে হামলা করে লুটপাট ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ

 বাগমারায় বাড়িঘরে হামলা করে লুটপাট ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ

রাজশাহী প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর বাগমারা উপজেলরার গোবিন্দপাড়া ইউনিয়নে মামুদপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তার এর বাড়িতে গত বৃহস্পতিবার রাতে হামলা ও মারপিট করে মোটা অংকের অর্থ ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।অভিযোগ সুত্রে জানা যায় পুর্ব শত্রুতার জের ধরে মাছ মারাকে কেন্দ্র করে গত বৃহস্পতিবার রাত্রী অনুমান ৯ টাই  একই গ্রামের মইনুল ইসলাম টুনু'র ছেলে মাসুদ রানা (২৫), হারুনুর রশিদ বাদশা (২৮),মৃত গােলাম মহির উদ্দীন মন্ডল এর ছেলে মইনুল ইসলাম টুনু (৫৫),আব্দুস সালাম মন্ডল এর ছেলে ফরিদ আহম্মেদ (২৬), দুলাল হােসেন (৩০) হামলা,মারপিট,ভাংচুর ও মোটা অংকের অর্থ ছিনিয়ে নেন।

এসময় আব্দুস সাত্তারের ছেলে রবিউল ইসলাম পল্টু তাদেরকে নিষেধ করে এবং বাধা দিলে বিবাদী মাসুদ রানা হাসুয়া দিয়ে এলোপাধাড়ী ভাবে রবিউল হোসেন পল্টুকে মাথায় কোপ দেয় তখন পল্টু মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তার কাছে থাকা  টাকাগুলো ছিনিয়ে নেন হামলাকারীরা।এসময় পল্টুর স্ত্রী স্বামীকে তাদের হাত থেকে বাচাতে গেলে বিবাদী হারুনুর রশিদ বাদশা লোহার রড দিয়ে পল্টুর স্ত্রীকে মারপিট ও শ্লীলতাহানী করে এবং তার গলায় থাকা স্বর্নের চেইন ছিনিয়ে নেয়।এসব ঘটনায় রবিউল হোসেন পল্টুর ছোট ভাই জুয়েল রানা বাদী হয়ে ১৮-১২-২০ ইং তারিখে বাগমারা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।বর্তমানে রবিউল হোসেন বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। এবং জুয়েল রানা অভিযোগ করে বাসায় ফেরার পথে হাটগাঙ্গোপাড়া বালিকা বিদ্যালয়ের পাশে তার উপর হামলা করে নাক,মুখ,মাথাই আঘাত করেন বিবাদীগন।

এবিষয়ে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাক আহম্মেদ এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন আমি সঙ্গেসঙ্গে সেখানে হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের এসআই আতাউর রহমানকে পাঠিয়েছি  এবং তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

No comments

-->