শিরোনামঃ

শেখ হাসিনাই দেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন- মজনু

 শেখ হাসিনাই দেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন- মজনু

উৎপল কুমার বগুড়া জেলা প্রতিনিধিঃ বুধবার সকাল ১১ টায় বগুড়া শহরের সাতমাথায় গণতন্ত্রের বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু বলেছেন, 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের জনগণ মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা,উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পক্ষে ব্যালটের মাধ্যমে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে গণরায় দিয়েছে। স্বাধীনতাবিরোধী-যুদ্ধাপরাধী,১৫ ই আগষ্ট,জেলহত্যা ও ২১ আগস্টের খুনি এবং সন্ত্রাস ,জঙ্গীবাদ সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছিলো দেশের জনগণ। বিএনপি তাদের চিরাচরিত ষড়যন্ত্রের রাজনৈতিক ধারাবাহিকতায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে অপতৎপরতা চালায়।শুধু তাই নয় ৫ ই জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে এবং পরে গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা বিনষ্ট করতে সারাদেশে বিএনপি জামাত অশুভ জোট আগুন সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে শত শত সাধারণ মানুষকে হত্যা করে।দেশের মানুষ বিএনপি জামাতের সকল ষড়যন্ত্রের বিপক্ষে গণরায় দিয়েছিলো। আমাদের প্রিয় নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বর্তমানে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা ও সুরক্ষিত করেছেন। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অগ্রগতির অভিষ্ঠ লক্ষে এগিয়ে চলেছে।আগামীতে বগুড়ার সকল স্থানীয় নির্বাচনে গণ রায়ের মধ্য দিয়ে গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষা করার জন্য নেতা কর্মিদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্ববান জানিয়েছেন।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা ডাঃ মকবুল হোসেন, টি জামান নিকেতা,আবুল কালাম আজাদ, প্রদীপ কুমার রায়, মঞ্জুরুল আলম মোহন, আসাদুর রহমান দুলু, শাহরিয়ার আরিফ ওপেল,জাকির হোসেন নবাব, শাহাদাৎ আলম ঝুনু।

জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আল রাজী জুয়েল এর পরিচালনায় এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন মুনসুর রহমান মুন্নু, শাহ্ আখতারুজ্জামান ডিউক, আব্দুল খালেক বাবলু, শেরিন আনোয়ার জর্জিস, এ্যাড শফিকুল ইসলাম আক্কাস, নাসরিন রহমান সীমা, তপন চক্রবর্তী, মাশরাফি হিরো, আনোয়ার পারভেজ রুবন, এসএম শাজাহান, জহিরুল হক বুলবুল, খালেকুজ্জামান রাজা, আবুল কাসেম ফকির, আছালত জামান, এ্যাড নরেশ মুখার্জি, আলমগীর হোসেন, অধ্যক্ষ সহিদুল ইসলাম দুলু, অধ্যক্ষ সামসুল আলম জয়, তৌফিকুর রহমান ভান্ডারি বাপ্পি, আব্দুস সালাম, সাইফুল ইসলাম বুলবুল,শুভাশিষ পোদ্দার লিটন, সাজেদুর রহমান সাহীন, লাইজিন আরা লিনা, রুমানা আজিজ রিংকি, আব্দুল্লাহ আল ফারুক, আলমগীর হোসেন স্বপন, প্রভাষক সোহরাব হোসেন সান্নু, গৌতম কুমার দাস, মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, আবু ওবায়দুল হাসান ববি, ডালিয়া নাসরিন রিক্তা, নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, অসীম কুমার রায়, রাশেদুজ্জামান রাজন প্রমুখ।

No comments

-->