শিরোনামঃ

আধুনিক আড়ানী পৌরসভা গড়তে নৌকার মাঝি হতে চানঃ মতি।

 আধুনিক আড়ানী পৌরসভা  গড়তে নৌকার মাঝি হতে চানঃ মতি। 

সাজ্জাদ মাহমুদ,বাঘা প্রতিনিধি,রাজশাহীঃ রাজশাহীর বাঘা  উপজেলার  আসন্ন  আড়ানী পৌরসভা  নির্বাচনে উন্নত, সমৃদ্ধ, মাদকমুক্ত , নারী নির্যাতন, বাল্যবিবাহ মুক্ত, পৌরসভার শিক্ষার উন্নয়ন, রাস্তা উন্নয়ন, পানি নিষ্কাশনে ড্রেন উন্নয়ন এবং আধুনিক পৌরসভা 

গড়তে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকার মাঝি হতে চান সাবেক ছাত্রনেতা, সাবেক আড়ানী ইউনিয়ন আওয়ামী যুব লীগের সভাপতি ও আড়ানী মনোমোহিনী  উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি, আড়ানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, আড়ানী পৌর আওয়ামী লীগের (২০০৭ইং -২০২০ ইং)  সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন মতি। 

বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা উন্নত- সমৃদ্ধ বাংলাদেশের রুপকারক জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন গুলো নৌকার মাঝি হয়ে পৌরসভার  মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে নিরলস ভাবে কাজ করতে চান তিনি ।

দুর্দিনের অত্যাচার, নির্যাতন, হামলা, মামলার ভুক্তভোগী আঃ মতিন মতি ১৯৮২ সাল থেকে ছাত্রলীগের কর্মী হিসেবে  রাজনীতির মাঠে পদার্পণ করেন। ১৯৮৫ সালে আড়ানী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন,এক বছর কলেজ শাখা সভাপতির দায়িত্ব পালনের পর ১৯৮৭ সালে আড়ানী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি  নির্বাচিত হন,দীর্ঘ ছয় বছর ইউনিয়ন সভাপতি দায়িত্ব পালন করেন তিনি। 

অতঃপর ১৯৯৪ সালে আড়ানী ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের  সভাপতির  দায়িত্ব পান এবং ১৯৯৪ সাল থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত একটানা  সভাপতি  হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। 

২০০৩ সালে আড়ানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এর দায়িত্ব পান,তিন বছর নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের পর ২০০৭ সালে আড়ানী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০০৭ সাল থেকে অদ্যবদি (২০২০) পর্যন্ত দায়িত্ব নিষ্ঠা ও সংগঠন  কে সুসংগঠিত রেখে পৌর  আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এর  দায়িত্ব পালন করছেন। 

আড়ানী মনোমোহিনী  উচ্চ বিদ্যালয়ের মতো সুনামধন্য প্রতিষ্ঠানে ২০০৯ সাল থেকে ২০১৯  সাল পর্যন্ত সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন । 

 তিনি বিভিন্ন সময় অসহায়, গরীব দুঃখী, সামাজিক অনুষ্ঠান, কন্যাদ্বায় পিতাকে, বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। মাঠে ময়দানে দুর্যোগে করোনা মহামারীতে  মানুষের  দুর্দিনে ঘরে-ঘরে, বাড়ি-বাড়ি গিয়ে নিজ তহবিল থেকে খাদ্য সামগ্রী, নগদ অর্থ প্রদান করেছেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন স্থানে  গণসচেতনা মূলক প্রচারণা ও মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরন করেন এই মহামারীতে এবং বর্তমানেও এই কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন তিনি। তিনি নির্দিদ্ধায় একজন দক্ষ নেতা, শিক্ষানুরাগী, সমাজ সেবক ও অসহায় মানুষের বন্ধু।

একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজপথের লড়াকু সৈনিক ও দলের দুর্দিনের ত্যাগী নেতা। চলমান আড়ানী পৌর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের হাতকে শক্তি শালী করে তোলার লক্ষে বিভিন্ন ভাবে ব্যাপক কাজ করে যাচ্ছেন।

বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রবীণ  নেতৃবৃন্দ ও দলের নেতা কর্মীর প্রতি তার অসীম ভালোবাসা, সম্মান ও শ্রদ্ধাবোধ রেখে সাংগঠনিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

 এলাকার মাটি ও মানুষের উন্নয়নের লক্ষ্যে এবং ৯টি ওয়ার্ডে অবহেলিত কাজ গুলি বাস্তবায়ন করার জন্য মানব কল্যাণের সেবাই এগিয়ে আসতে চান। 

আঃ মতিন মতি  বলেন, আমি এলাকার সার্বিক উন্নয়নের জন্য, বাঘা উপজেলা  বৃহত্তম   আড়ানী পৌরসভা কে চাঁদাবাজ, সন্ত্রাস, নারী নির্যাতন, বাল্য বিবাহ ও মাদক নির্মূল করে, জননেত্রীর উন্নয়নের ধারা পৌরসভায় বয়ে দিতে এলাকা বাসীকে শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করার পরিবেশ সৃষ্টি করতে আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকার মাঝি হতে চাই। দল এবং আমার নেতা বাংলাদেশ সরকারের সফল পররাষ্ট্র প্রতিমুন্ত্রী রাজশাহী -৬ (চারঘাট -বাঘা) আসনের মাননীয় সাংসদ আলহাজ্ব মোহাম্মদ শাহরিয়ার আলম এম পি ভাই যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় । আমি আমার পৌরসভার জনগণের প্রতি সম্মান, আন্তরিক ভালোবাসা ও শ্রদ্ধাবোধ রেখে আমি সবার সহযোগিতা কামনা করছি।

No comments

-->