শিরোনামঃ

মহান বিজয় দিবসে রামনগর ইউনিয়নের কৃতি সন্তান মফিজার রহমানের শুভেচ্ছা।

 মহান বিজয় দিবসে রামনগর ইউনিয়নের কৃতি সন্তান মফিজার রহমানের শুভেচ্ছা।।



স্টাফ রিপোর্টার:


বাঙালির জাতীয় জীবনের সবচেয়ে গৌরবময় মাস ডিসেম্বর। এ মাসেই বাঙালি পেয়েছিল তার বহু কাঙ্ক্ষিত স্বাধীনতা। ইতিহাসের জঘন্যতম গণহত্যা, পাক হানাদার বাহিনীর বর্বরতম হত্যাযজ্ঞ, নির্যাতন, নিপীড়নের বিরুদ্ধে লড়ে ৯ মাসের ত্যাগ তিতিক্ষার পর পৃথি



বীর বুকে এ মাসেই রচিত হয়েছিল এক অমর গাঁথা– বাঙালির স্বাধীনতা,একটি মানচিত্র, একটি পতাকা। ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ নামক যে রাষ্ট্র বিজয় গৌরবে তার যাত্রা শুরু করেছিল, আজ তা বিশ্বের কাছে এক অপার বিস্ময়, উন্নয়নের রোল মডেল!


বাঙালির জাতীয়তাবোধের উন্মেষের সুদীর্ঘ ইতিহাসে শ্রেষ্ঠতম ঘটনা হলো ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ। সশস্ত্র স্বাধীনতা সংগ্রামের এক ঐতিহাসিক ঘটনার মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতির কয়েক হাজার বছরের সামাজিক, রাজনৈতিক স্বপ্ন পূরণ হয় এই মাসে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে জনযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল এ দেশের মানুষ। ৯ মাসের সশস্ত্র সংগ্রাম আর ত্রিশ লাখ শহীদ ও দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমহানির মাধ্যমে আসে জাতীয় মুক্তি।


১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানের কবল থেকে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে ঠিকই কিন্তু বিকৃত ইতিহাস উপস্থাপন এবং জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের অবজ্ঞাসহ বাংলাদেশকে অকার্যকর রাষ্ট্র হিসেবে বহির্বিশ্বে তুলে ধরার জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে স্বাধীনতা বিরোধি শক্তি। সকল অপপ্রচার ও অসত্য ইতিহাস চর্চা থেকে মুক্ত হোক বাংলাদেশ। প্রতিষ্ঠিত হোক মুক্তিযুদ্ধের মহান চেতনা। বিজয়ের মাস ডিসেম্বর যেন আমাদের সেই সত্য ও সুন্দর হয় এই পথ চলা।

জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।

মফিজার রহমান

আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগ সিনিয়র সহ সভাপতি নীলফামারী জেলা শাখা।

No comments

-->