নতুন প্রকাশিতঃ

মহাদেবপুরে বঙ্গবন্ধুর ত্যাগী সৈনিক শহিদুল সরদারকে চেয়ারম্যান হিসাবে পাওয়ার জন্য ভোটারেরা প্রচারণায় ব্যস্ত

 মহাদেবপুরে বঙ্গবন্ধুর ত্যাগী সৈনিক শহিদুল সরদারকে চেয়ারম্যান হিসাবে পাওয়ার জন্য ভোটারেরা প্রচারণায় ব্যস্ত



মোঃ রফিকুল ইসলাম,মহাদেবপুর,নওগাঁ প্রতিনিধি :-ঃ- নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার ৯নং চেরাগপুর ইউনিয়নের ভোটারেরা বঙ্গবন্ধুর ত্যাগী সৈনিক, আওয়ামী ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান,নওগাঁ-৩ আসনের এমপি ছলিম উদ্দীন তরফদার সেলিমের বন্ধু শহিদুল সরদারকে ইউপি চেয়ারম্যান হিসাবে পাওয়ার জন্য ভোটারেরা প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত হয়ে উঠেছে। গ্রাম-গঞ্জে,হাটবাজারে চায়ের দোকানে শহিদুল সরদারের প্রচারণায় মুখোরিত ভোটারেরা। শহিদুল সরদারের প্রষ্টারে প্রষ্টারে ছেয়ে গেছে চেরাগপুর ইউনিয়নের গ্রাম-গঞ্জে। চেরাগপুর ইউনিয়ন পরিষদের ভোটার ও সাধারণ জনতা চেয়ারম্যান হিসাবে পেতে চায় শহিদুল সরদারকে এবং স্বপ্ন দেখে জনতা এই বঙ্গবন্ধুর সৈনিক শহিদুল সরদারকে নিয়ে। জনতার মাঝে মিশে আছে এই ত্যাগী নেতার হৃদয়। কখনও অসহায় মানুষের পাশে আবার কখনও সংঘাত নিরসনে সংঘাত মুক্ত সমাজ গঠনে শহিদুল সরদারের ভুমিকা সবার নজর কেড়ে নিয়েছে।তিনি নিজের স্বার্থ বিলিন করে মানুষের পাশে সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। লোভ-লালোসা,পদপদবী পারেনি বঙ্গবন্ধুর এই ত্যাগী নেতাকে পর্শ করতে এমনি অভিমত এলাকার সমালোচকদের। এলাকার আওয়ামীলীগের প্রবীণ রাজনীতিবীদ খাজা ওয়াহেদ ইসলাম জানান, এক সময় মিছিলে জয়বাংলার শ্লোগান দেয়ার মত কোন নেতা কর্মি ছিল না। সেই সময় ঘাত-প্রতিঘাত উপেক্ষা করে জয়বাংলার শ্লোগানে মিছিল মুখোরিত করে তুলত এই শহিদুল সরদার। এই প্রবীণ নেতা আফসোস করে বলেন,এইসব ত্যাগী নেতাদের ফিরে আনতে হবে,তাদের মূল্যায়ণ করতে হবে তবেই না সোনার বাংলা সোনায় ভরে উঠবে। সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বাবু ফট্রিক চন্দ্র লাটু জানান,শহিদুল সরদার আওয়ামীলীগের একজন বলিষ্ঠ বজ্রকণ্ঠ। তিনি মিছিল ও প্রতিবাদ সভায়

জয়বাংলার শ্লোগানে কাপিয়ে তুলতেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ডা.মজিবর রহমান জানান,বঙ্গবন্ধুর ত্যাগী সৈনিক শহিদুল সরদারকে মূল্যায়ন করার জন্য বন্ধবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সুদৃষ্ঠি কামনা করেন এবং চেরাগপুর ইউনিয়ন বাসীর স্বপ্ন বাস্তবায়নে এই নেতাকে নৌকা প্রতিকের মাধ্যমে জয়যুত্ত দেখতে চাই। আওয়ামী পরিবারের সন্তান কবি আফজাল হোসেন জানান,শহিদুল সরদার আওয়ামীলীগের নিবেদত প্রাণ। হাইব্রিড আর মুখোশধারীদের চাটুকারিতায় হারিয়ে যেতে বসেছে ত্যাগী

পরীক্ষিত নেতারা। এখন সময় এনেছে তাদের ফিরিয়ে আনতে হবে। কবি এই ত্যাগী নেতা শহিদুল সরদারকে মূল্যায়ণ করার জন্য চেরাগপুর ইউনিয়নবাসীর প্রতি সাধুবাদ জানান। বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব ডা.আব্দুর রশীদ জানান, শহীদুল সরদার আওয়ামী পরিবারের সন্তান এবং আওয়ামীলীগের নিবেদত প্রাণ।

এমন নেতাকে যোগ্য পদে রাখলে দলে হাইব্রিড কাউয়াদের স্থান হবে না।

তিনিও চেরাগপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চান এই বঙ্গবন্ধুর ত্যাগী নেতা শহিদুল সরদারকে। এমপি ছলিম উদ্দীন তরফদার সেলিম জানান,শহিদুল সরদার আমার বন্ধু এবং আওয়ামী পরিবারের সন্তান। আমি তার সফলতা কামনা করি। বঙ্গবন্ধুর এই ত্যাগী নেতা শহিদুল সরদার জানান,দলের জন্যতিনি সব কিছু ত্যাগ করতে প্রস্তুত। দলের নীতিনিধারকেরা যদি আমাকে নৌকা প্রতিক দেন তাহলে আমি জয়ি হবো ইনর্শআল্লাহ। তিনি সকলের নিকট দোয়া প্রার্থনা করেন। এলাকার ভোটার ও সাধারণ জনতা এই ত্যাগী নেতা,বঙ্গবন্ধুর সৈনিক শহিদুল সরদারকে চেয়ারম্যান হিসাবে পেয়ে তাদের স্বপ্ন ব্যস্তবায়ন করতে চায় এমনি প্রত্যাশা তাদের।

No comments

-->