শিরোনামঃ

বগুড়ার শিবগঞ্জে মা-মেয়েকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ

 বগুড়ার শিবগঞ্জে মা-মেয়েকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ

উৎপল কুমার, বগুড়া প্রতিনিধিঃ সাদুল্যাপুর গ্রামে মা ও মেয়েকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ উঠেছে স্বামী, ছেলে,জামাই, ছোট মেয়ে ও অজ্ঞাত দুই ব্যাক্তির দ্বারা। অতঃপর থানায় অবগত করলে পুলিশ আহত ফুলবি ও মিনি কে উদ্ধার করে স্থানীয়দের সহযোগিতায় হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সাদুল্যাপুর গ্রামের ফুলবি বেগম (৫০) তার জামাই অত্র এলাকার কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী, চোর,ডাকাত বাহিনীর সদস্য আব্দুর রাজ্জাকে এহেন অপরাধ মূলক কাজ থেকে সরে দাড়ানোর কথা বললে রাজ্জাক ও অন্যান্য বিবাদীগণ ক্ষিপ্ত হয়ে আমার (ফুলবি) ক্ষতি সাধনে লিপ্ত থাকে। 

এরই ধারাবাহিকতায় ২৮ ডিসেম্বর রাত আনুমানিক ১২.৩০ ঘটিকার সময় বিবাদীগণ বাবলু মিয়া, পিতা- তছির উদ্দিন, এনামুল হক, পিতা- বাবলু মিয়া, আব্দুর রাজ্জাক, পিতা- আমজাদ হোসেন, মিনারা বেগম, স্বামী - আব্দুর রাজ্জাক সহ দুই তিন জন আমাদের হত্যার উদ্দেশ্যে আমাকে ধারালো চাকু ও রড দ্বারা আমার মেয়েকে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে শয়ন কক্ষে আটকে রাখলে। 

উক্ত সময়ে আমার মেয়ে মিনি থানা পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আমাদেরকে আহত অবস্থায় স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে দেয়। বাড়িতে না থাকার সুযোগে সকল বিবাদীগণ বাড়িঘর ভাংচুর করতে থাকিলে থানা পুলিশ খবর পেয়ে ২ নং আসামী এনামুল হক কে আটক করে থানায়  নিয়ে আসে। আর অন্যান্য বিবাদীগণ আমাকে ও আমার মেয়ে (মিনি) মারপিট খুন জখম করবে বলে হুমকি ধামকি করছে।

এ বিষয়ে শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম বদিউজ্জামান বলেন, একজন কে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে এবং সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

No comments

-->