শিরোনামঃ

করোনাকালে সেবা করে লাখ টাকা পুরস্কার

 করোনাকালে সেবা করে লাখ টাকা পুরস্কার

অনলাইন ডেক্সঃ করোনাভাইরাস মহামারিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানবসেবায় কাজ করা বেশ কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবককে এক লাখ থেকে বিভিন্ন অঙ্কের টাকা পুরস্কার দেয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক দিবস উপলক্ষে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত ‘বাংলাদেশের এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে স্বেচ্ছাসেবা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে এ পুরস্কার দেয়া হয়।করোনা মহামারির কারণে বিশ্বজুড়েই মানুষ এক অভুতপূর্ব হুমকির সম্মুখীন। প্রতিদিনই পৃথিবীব্যাপী লাখ লাখ মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। মৃত্যু হচ্ছে অনেকের। কঠিন সংকটেও বিশ্বজুড়ে নিবেদিত স্বেচ্ছাসেবকরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন।

ওয়াটারএইড বাংলাদেশ, এমএলজিআরডিসি, ইউএনভি বাংলাদেশ, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উদ্যোগে ‘আইভিডি বাংলাদেশ ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ এর মাধ্যমে দেশের স্বেচ্ছাসেবকদের স্বীকৃতি মিললো।এ উদ্যোগের মাধ্যমে নির্বাচিত বেশ কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবককে এক লাখ থেকে নানা অঙ্কের টাকা পুরস্কার দেয়া হয়। আবেদন পত্রগুলোর মধ্য থেকে কঠোর ও নিরপেক্ষ প্রক্রিয়ার বিজয়ীদের নির্বাচন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী তাজুল ইসলাম জানান, এসডিজি’র লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে স্বেচ্ছাসেবাকে উৎসাহ দিতে তার মন্ত্রণালয় জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক ফ্রেমওয়ার্ক তৈরি করবে।করনোকালে স্বেচ্ছাসেবীদের অবদানের কথা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ‘করোনাভাইরাসের সময় স্বেচ্ছাসেবীরা হাত ধোয়া এবং ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতা সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য অনবরত কাজ করে যাচ্ছে। এর ফলে, জাতি হিসেবে আমরা সুচারুভাবে এই ভয়াবহ পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে সক্ষম হচ্ছি।’

জাতিসংঘের রেসিডেন্ট কো-অর্ডিনেটর মিয়া সেপ্পো বলেন, ‘এ যাবতকালে বাংলাদেশের সেচ্ছাসেবকগণ সমগ্র বিশ্বে তাদের যে নিঃস্বার্থ শ্রম দিয়ে গেছেন, তা সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে।’

No comments

-->