নতুন প্রকাশিতঃ

মানুষ যখন একলা থাকাটা খুব ভালোভাবে শিখে যায়-----

 মানুষ যখন একলা থাকাটা খুব ভালোভাবে শিখে যায়-----


১/কারো কাছে কিছু চাওয়ার থাকে না,আবদার থাকে না..

২/সময়ে-অসময়ে কেউ পাশে না থাকার আফসোস করে না..

৩/কাউকে সাথে না পেলে অভিমান-অভিযোগ করে না..

৪/কাছের মানুষ থাকলেও,তাদের উপরে অধিকার খাটাতে যায় না..

৫/নতুন করে কাউকে প্রিয় মানুষ হওয়ার সুযোগ দেয় না..

৬/নিজে ভুল কি সঠিক সেটা কাউকে বিশ্লেষণ করতে যায় না..

৭/যে কোন কোন যুক্তি-তর্কের কথা গুলো এড়িয়ে চলে উত্তর দেওয়ার ভয়ে...

৮/কঠিন বিষয় গুলো বা,কষ্ট পাওয়ার ব্যাপার গুলোকে পজিটিভ ভাবে দেখে...

 ৯/প্রচণ্ড রকমের আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠে নিজের উপরে..অনুভুতিতে ব্যাপক নিয়ন্ত্রণ...

১০/এদের প্রথম প্রায়োরিটি হয়,মানসিক শান্তি..


১১/বিশ্বাস এদের খুব দামী..তাই,সহজে কোন মানুষকে বিশ্বাস করে না...

১২/নিজের খুশির কাজ গুলো,কারণ গুলো একাই খুঁজে বের করতে পারে..

১৩/কোন মায়ার বাঁধনে এরা জড়াতে চায় না কষ্ট পাওয়ার ভয়ে..

১৪/যে কোন পরিস্থিতিতে নিজের মনোবল অটুট রেখে সাহসী হয়ে থাকতে পারে..

১৫/এদের হৃদয়টা খুব নরম,কিন্তু সে হৃদয়ের খবর খুব কম মানুষই বুঝতে পারে..

১৬/মানুষকে প্রচুর উৎসাহ আর অনুপ্রেরণা দিতে পারে...

১৭/নিজেকে দায়বদ্ধতা থেকে মুক্ত রাখতে চায় সবসময়..

১৮/কারো সমালোচনাতে কান দেয় না.অন্যের কথায় আরেকজনকে বিচার করতে যায় না..

১৯/চুপ করে আরেকজনের কথা শোনে,কিন্তু নিজে কথা বলে একেবারেই কম..

২০/প্রচুর হাসতে,হাসাতে পারে..

দিনশেষে একলা একাই সবকিছুকে উপভোগ করতে পারে..


এই যে একলা থাকা শিখে যাওয়া মানুষ গুলো,এরা একদিনে সব শিখে না..আপন মানুষ গুলোর কাছে আঘাত পেয়ে,বাস্তবতার বারবার ধাক্কা খেয়ে,প্রয়োজনের সময় গুলোতে কাছের মানুষকে না পেয়ে সব কঠিনতার বিরুদ্ধে একলা একা যুদ্ধ করাটা শিখে যায়...


ওরা একটা সান্ত্বনা দিয়েই নিজেকে বদলে ফেলে--

"নরম হৃদয় হওয়ার অপরাধে যদি সবার কাছ থেকে কষ্টই পেতে হয়,তবে কঠিনতার মুখোশ পরে একলা থাকাই ভালো...."

No comments

-->