নতুন প্রকাশিতঃ

বগুড়া করোনা'য় ব্যাংক কর্মকর্তা মৃত্যু

 বগুড়া করোনা'য় ব্যাংক কর্মকর্তা মৃত্যু 



শেখর চন্দ্র সরকার স্টাফ রিপোর্টার 


উত্তরবঙ্গে শীতের প্রকোপ বেড়েছে জনজীবন স্বাভাবিক থাকলেও অসুস্থতার হার বেড়েছে। হাঁপানি শ্বাসকষ্ট, এলার্জি এই ধরনের রুগি একটু বেশী তারপরেও শিশু ও বয়স্কদের অবস্থা বরাবরের মতোই লাজুক। করোনার কারনে অগোছালো সাবধানতা অনিয়ম স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলার কারনে করোনার কাছে পরাজয় বরন করে না'ফেরার দেশে চলে যেতে হচ্ছে অনেক কে। 


করোনা কেড়ে নিল আরো একটি প্রান, আজ বগুড়ায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মোস্তাফিজার রহমান (৬৬) নামে সাবেক এক ব্যাংক কর্মকর্তা মারা গেছেন । রোববার ২০ ডিসেম্বর সকাল ৮ টায় দিকে মারা যান তিনি। মোস্তাফিজারের গ্রামের বাড়ি বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার ফুলদীঘি বলে জানা গেছে। তিনি বাংলাদেশ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত যুগ্ম ব্যবস্থাপক ছিলেন।


বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল চিকিৎসক শফিক আমিন কাজল তার মৃত্যু নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, মোস্তাফিজার রহমানকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে রেফার্ড করা হয় মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে। তার অক্সিজেন লেভেলের মাত্রা অনেক কমে গিয়েছিল। তাকে আইসিইউতে রাখা হলেও ভোর ৪টার দিকে রোগীর স্বজনরা হাসপাতাল থেকে টিএমএসএস হাসপাতালের নিয়ে যায়। পথে তিনি মারা যান।


স্বজনদের কাছে থেকে জানা গেছে, তিনি গত ১৭ তারিখ রাতে শারীরিক অসুস্থতায় টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে করোনা শনাক্ত হন। পরবর্তীতে অবস্থা আরও খারাপ হলে শজিমেকে আনা হয়। অক্সিজেনের সংকট দেখা দিলে শনিবার তাকে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে আনা হয়। পরে রোববার সকালে ৮টার দিকে মারা যান তিনি।


জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু নিয়ে জেলায় মোট মৃত্যুসংখ্যা ২২০ জন। এ ছাড়া জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৫৯ জন করোনায় শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে সদরের ৫৬, শাজাহানপুর ২ এবং কাহালুতে একজন। একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৩১ জন।


গতকালের পরিসংখ্যান আজ রোববার দুপুুুরে জানিয়েছেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহীন। তিনি জানান, জেলায় করোনায় আক্রান্ত হলেন ৯ হাজার ৪৪২ জন এবং সুস্থতার সংখ্যা ৮ হাজার ৫৩৩ জন।।

No comments

-->