নতুন প্রকাশিতঃ

মুরাদনগর থেকে জাতীয় গ্রিডে ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস

 মুরাদনগর থেকে জাতীয় গ্রিডে ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস



মঙ্গলবার (নভেম্বর ২৪, ২০২০) বেলা দেড়টা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে গ্যাস উত্তোলন শুরু হয়। এই গ্যাসক্ষেত্র থেকে জাতীয় গ্রিডে প্রতিদিন ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস যুক্ত হবে বলে জানিয়েছেন প্রকৌশলীরা।


কুমিল্লার মুরাদনগরের শ্রীকাইল গ্যাস ক্ষেত্রের নতুন কূপ থেকে গ্যাস উত্তোলন শুরু হয়েছে।


বুধবার (নভেম্বর ২৫, ২০২০) সকালে গ্যাসফিল্ড ইনচার্জ প্রকৌশলী মো. শাহজাহান দেশ বাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তির সহায়তায় গ্যাস তোলা হচ্ছে। এই গ্যাসক্ষেত্র থেকে জাতীয় গ্রিডে প্রতিদিন যুক্ত হচ্ছে ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস।


প্রকৌশলী মো. শাহজাহান জানান, এই কূপের উপরের স্তর থেকে ২০১৩ সালের জুন মাসে প্রথম গ্যাস উত্তোলন শুরু হয়। সেখান থেকে প্রতিদিন ৬০-৭০ লাখ ঘনফুট করে গ্যাস উত্তোলন করা হচ্ছিল। এখন ওই স্তরটি বন্ধ করে নতুন স্তর থেকে গ্যাস উত্তোলন শুরু হলো।

‘বিদেশ থেকে আমাদের বিপুল পরিমাণ তরল প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানি করতে হয়। এই নতুন কূপের গ্যাস যদি এলএনজি খাতে ব্যবহার করা যায় তাহলে বিপুল পরিমাণে রাজস্ব আহরণ সম্ভব হবে।’

এর আগে তিনি জানান, টানা ৫৫ দিন অনুসন্ধানের পর শ্রীকাইল গ্যাস ফিল্ডের চার নম্বর কূপে গ্যাসের নতুন স্তরের সন্ধান মেলে। নতুন স্তরে অন্তত ৩০০০ থেকে ৪০০০ কোটি ঘনফুট গ্যাস থাকতে পারে।

No comments

-->