নতুন প্রকাশিতঃ

নওগাঁর মহাদেবপুরে একটি ড্রেন নির্মাণের ফলে জলাবদ্ধতামুক্ত হলো ৭শ একর জমি

 নওগাঁর মহাদেবপুরে একটি ড্রেন নির্মাণের ফলে জলাবদ্ধতামুক্ত হলো ৭শ একর জমি



মোঃ রফিকুল ইসলাম, মহাদেবপুর,নওগাঁ  জেলা প্রতিনিধি ঃ নওগাঁর মহাদেবপুরে একটি ড্রেন নির্মাণের ফলে জলাবদ্ধতামুক্ত হলো প্রায় ৭শ একর জমি। 

মহাদেবপুর উপজেলার চাঁন্দাশ ইউনিয়নের রামরায়পুর মৃধা পাড়া হতে ৫৫০ ফুট ড্রেন নির্মাণের ফলে ওই ইউনিয়নের ডিমজাউন, ভোলাবাজার, তংকা শিবপুর, অনন্তপুর, রামরায়পুর সহ আশেপাশের আরো কয়েকটি গ্রামের ১ হাজার কৃষকের প্রায় ৭শ একর জমিতে আমন ধান উৎপাদনের সম্ভবনার দ্বার উম্মোচিত হলো।

সরোজমিনে দেখা যায়, ডিমজাউন সাতবিলা থেকে রামরায়পুর পর্যন্ত বিল অঞ্চল হওয়ার কারণে এ এলাকার জমিগুলো অপেক্ষাকৃত নিচু হওয়ায় পানি জমে থাকার কারণে দীর্ঘদিন থেকে ওই এলাকার কৃষকগনের আমন ফসল উৎপাদন ব্যহত হতো। 

রামরায়পুর গ্রামের কৃষক খোয়াজ উদ্দীন, আবুল কালাম, লতিফর রহমান, খোরশেদ আলম জানান, জলাবদ্ধ হয়ে থাকার কারণে এ এলাকার কৃষকদের দীর্ঘদিন থেকে ভোগান্তি পোহাতে হতো। এ অবন্থা দেখে চাঁন্দাশ ইউনিয়নের কৃষি বান্ধব চেয়ারম্যান মোঃ মাহমুদান নবী রিপন এ ড্রেন নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করে ড্রেনের নির্মাণ কাজ শুরু করে। ড্রেনটির নির্মাণকাজ সমাপ্ত হলে এ এলাকার প্রায় ১ হাজার কৃষক আমন মৌসুমে ধান চাষ করে লাভবান হবেন। 

চাঁন্দাশ ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মাহমুদান নবী রিপন জানান, সাতবিলা থেকে শুরু করে রামরায়পুর পর্যন্ত ছোট একটি খাড়ি থাকলেও রামরায়পুর মৃধা পাড়ায় এসে তা শেষ হয়ে গিয়েছিলো। তাই বন্যার সময় ওই এলাকার পানি বের হতে না পেরে সমস্ত এলাকা প্লাবিত হয়ে পড়ত। এতে অপেক্ষাকৃত নিচু জমিতে সময়মত কৃষকরা ধান রোপণ করতে না পেরে ক্ষতির সম্মুখীন হতো। তাই কৃষকের সুবিধার কথা চিন্তা করে রামরায়পুর মৃধাপাড়া থেকে ৫৫০ ফুট আন্ডার গ্রাউন্ড ড্রেন নির্মাণ করা হয়েছে। এখন থেকে বন্যার পানি এলাকায় প্লাবিত না হয়ে ওই ড্রেন দিয়ে চলে যাওয়ার কারণে কৃষকেরা সময়মত ধান চাষ করে লাভবান হবেন।

No comments

-->