নতুন প্রকাশিতঃ

"পুলিশ যখন সাধারণ মানুষের বন্ধু

 "পুলিশ যখন সাধারণ মানুষের বন্ধু! "



মিজানুর রহমান মিলন,বগুড়া জেলা প্রতিনিধি:

পুলিশ যে আর ভয় বা আতঙ্কের কারন নয় তারই প্রমাণ বহন করে চলেছেন বগুড়া জেলার শাজাহানপুর থানার সাব-ইন্সপেক্টর শামীম হাসান। তরুণ প্রজন্মের এই পুলিশ অফিসার শাজাহানপুর থানার আমরুল ইউনিয়নের বিট পুলিশিং অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। নিয়মিত ডিউটির ফাঁকে তিনি প্রায়ই তার বিট এলাকা ঘুরে দেখেন।  আমরুল ইউনিয়নের সাধারণ জনগণের সাথে মিশে গেছেন এই পুলিশ অফিসার। অপরাধ দমনে এস আই শামীম হাসানের ভূমিকা অবিস্মরণীয়।  তার পদচারণায় আমরুল ইউনিয়নের তালিকাভুক্ত চোর,মাদকসেবি, মাদক ব্যবসায়ীরা এবং পেশাদার অপরাধীরা বাড়ি ছেড়েছে। তিনি সকল অপরাধীদের কড়া বার্তা জানিয়ে দিয়েছেন যে কোন ধরনের আইন শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজ সহ্য করা হবে না। এলাকায় ছোটখাটো সমস্যার সমাধান করেন মূহুর্তেই। সাব-ইন্সপেক্টর শামীম আমরুল ইউনিয়নের মোবার মার্কেট, গোবিন্দপুর বাজার, নগরহাট, রাজারামপুর বাজার, শৈলধুকরি খালের পাড়সহ যে কোন এলাকায় গেলেই এলাকার সাধারন মানুষ তাকে ঘিরে থাকতে দেখা যায়। বিট এলাকায় যে কোন সমস্যার সৃষ্টি হলেই চেয়ারম্যান, মেম্বার ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে দ্রুত সে সমস্যার সমাধান করেন। আমরুল ইউনিয়নবাসীর একটি আস্থা ও বিশ্বাসের যায়গা দখল করে নিয়েছেন এই পুলিশ অফিসার।  আমরুল ইউনিয়নের মানুষের মুখে মুখে এখন এই মানবিক পুলিশ অফিসারের নাম।  এস আই শামীম জয় করে নিয়েছেন সাধারণ মানুষের মন। তার কথায় ভিন্নতা প্রকাশ করার মানুষ আমরুল ইউনিয়নে খুঁজে পাওয়া ভার। সত্য ও ন্যায়ের জন্য তিনি যেমন কোমল, অন্যায়ের বিরুদ্ধে তেমনি কঠোর। কেউ কোন অন্যায় করলে তিনি তাকে আইনের দারস্থ করে শাস্তির ব্যবস্থা করেন। অপরদিকে তিনি একজন ভাল আইনি পরামর্শ দাতা। বিভিন্ন সময়ে থানা এলাকার মানুষ তার কাছে আইনি পরামর্শের জন্য গেলে তিনি সবাইকে উত্তম পরামর্শ দেন। তার সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলতে পারেন যে কোন বয়সের মানুষ। প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মাদ্রাসা, মন্দির, হাট বাজারের সভাপতি ও প্রধানদের এস আই শামীম দিয়েছেন যে কোন সমস্যায় পাশে থাকার আশ্বাস। আইনের সেবা আমরুল ইউনিয়নের সর্বত্র পৌঁছে গেছে এবং ভাল মনের পুলিশ অফিসার পেয়ে আমরুল ইউনিয়নবাসী তাকে কাছে পেলেই কেউবা  করমর্দন করে, কেউবা বুকে টেনে নেয়। আমরুল ইউনিয়নের মানুষ ইতিপূর্বে কখনো এমন জনতার পুলিশ দেখেনি এমন সমালোচনা বিভিন্ন বাজারে শোনা যায়।  শাজাহানপুর থানার সর্বস্তরের মানুষ এস আই শামীম হাসানকে একজন বিনয়ী, সৎ ও আদর্শ পুলিশ অফিসার হিসেবে জানে। এস আই শামীম হাসানকে তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে জিজ্ঞেস করলে তিনি জানান যে, তিনি সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া থানার চয়ড়া গ্রামে ১৯৯২ সালে জন্মগ্রহণ করেন।গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয় ও উচ্চ বিদ্যালয়ে  দ্বিতীয় শ্রেণী হতে দশম শ্রেণী পর্যন্ত বৃত্তিসহ একটানা প্রথম স্থান অধিকার করেন। তিনি ঢাকা কলেজ থেকে ইংরেজি সাহিত্য অনার্স ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ইংরেজি সাহিত্যে মাস্টার্সে ফাস্ট ক্লাস পেয়ে শিক্ষাজীবন শেষ করেন।  তিনি ২০১৮ সালে ৩৬ তম ক্যাডেট এস আই হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন।

No comments

-->