নতুন প্রকাশিতঃ

নওগাঁর মহাদেবপুরে কিশোর চালকের গলায় ছুরিকাঘাত করে অটোরিকশা ছিনতাই

 নওগাঁর মহাদেবপুরে কিশোর চালকের গলায় ছুরিকাঘাত করে অটোরিকশা ছিনতাই

মোঃ রফিকুল  ইসলাম, মহাদেবপুর-নওগাঁ প্রতিনিধি  ঃ নওগাঁর মহাদেবপুরে আল-আমিন (১৮) নামে এক কিশোরের গলায় ছুরিকাঘাত করে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ছিনতাই করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

আল-আমিনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেয়া হলেও তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রাতেই সোহাগ (২১) নামে অপর এক চালককে পুলিশ ফাঁড়ি হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

১ নভেম্বর রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার চেরাগপুর ইউনিয়নের স্বরুপপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আল-আমিন উপজেলার বাগধানা গ্রামের আশরাফুলের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যায় আল-আমিন শরীরে কাঁদামাটি ও রক্তাক্ত অবস্থায় নওহাটা মোড়ে এসে পড়ে যায়। এরপর পুলিশ ফাঁড়িতে বিষয়টি অবগত করা হয়। ওই সময় কিশোর চালক হাত দিয়ে তার গলা ধরে ছিল। তেমন কথা বলতে পারছিল না।

পুলিশের সহযোগিতায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে প্রথমে নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে একটি স্কসটেপ ও একটি ব্যাগ পড়ে ছিল। অটোরিকশা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে হাত-পা ও মুখ বেঁধে গলায় ছুরি দিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা।

ওই অটোরিকশার মালিক বেলঘরিয়া গ্রামের বিশু ঋষি বলেন, তিনদিন আগে তিনি তার অটোরিকশাটি চালানোর জন্য সোহাগকে দিয়ে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যান। তিনি জানতে পারেন রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে সোহাগ হাঁপানিয়া বাজার নামক স্থানে আল-আমিন নামে এক যুবককে সেটি চালানোর দায়িত্ব দেন।

এরপর আল-আমিন নওহাটামোড় থেকে তিনজন যাত্রী নিয়ে স্বরুপপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। পথিমধ্যে যাত্রীবেশী অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা তার মুখে ও হাত-পায়ে স্কসটেপ পেঁচিয়ে গলায় ছুরিকাঘাত করে অটোরিকশা নিয়ে পালিয়ে যায়।

নওহাটা পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিয়াউর রহমান জানান, ছিনতাইকৃত অটোরিকশাটি ভোররাতে নওগাঁ সদরের শিবপুর নামক স্থানের বড় ব্রিজের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ছিনতাইকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত আছে। 

No comments

-->