নতুন প্রকাশিতঃ

ঠাকুরগাঁওয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে তিন বন্ধুকে মৃত্যুদন্ডাদেশ দিয়েছে আদালত

 ঠাকুরগাঁওয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে  তিন বন্ধুকে  মৃত্যুদন্ডাদেশ দিয়েছে আদালত।

মোঃসোহেল রানা,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃঠাকুরগাঁওয়ে বন্ধুকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে সুইট আলম, পলাশ ও হাসান জামিল নামে তিন আসামীকে মৃত্যুদন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এর বিচারক বিএম তারিকুল কবীর এ রায় প্রদান করেন।


মামলার বিবরনে জানা যায়, দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর থানার আন্ধারমুহা গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে রেজাউল ইসলাম স্থানীয় টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজে লেখাপড়ার পাশাাপশি ওয়াল্ডভিশন-২১ নামে একটি মাল্টিলেবেল কোম্পানীতে চাকুরি করত। চাকুরির সুবাদে দন্ডিত আসামীদের সঙ্গে রেজাউলের বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। 


বন্ধুদের সিদ্ধান্তে দিনাজপুরের পাবর্তীপুরে ওই কোম্পানীর আরো একটি নতুন অফিস খোলার সীদ্ধান্ত নেয়। পরে সকলে মিলে পাবর্তীপুরে গেলে নিহত রেজাউলের মোটর সাইকেলের প্রতি অপর বন্ধুদের চোখ পড়ে। ২০১৫ সালের মার্চ মাসে দন্ডপ্রাপ্ত আসামীদের যোগসাজসে নিহত রেজাউলের মোটর সাইকেল হাতিয়ে নিতে ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর কৈমারী গ্রামের বজির উদ্দীনের ছেলে তিন নং আসামী হাসান জামিলের বাসায় আসার কথা বলে একটি বাঁশঝাড়ে নিয়ে যায়। 


পরে পরিকল্পিতভাবে হত্যার পর আগুন ধরিয়ে দিয়ে মোটর সাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। এ ঘটনার পর তদন্ত শেষে বালিয়াডাঙ্গী থানার এসআই আবু তালেব বাদি হয়ে মামলা দায়ের করে। ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে তিন বন্ধু সুইট আলম,পলাশ ও হাসান জামিলের নাম উল্লেখ্য করে আদালতে চার্চশীট দাখিল করে।


এ ঘটনায় সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে আদালত আজ দুপুরে আসামী সুইট আলম, পলাশ ও হাসান জামিলকে মৃত্যুদন্ডাদেশ প্রদান করেন আদালতের বিচারক।

No comments

-->